BREAKING NEWS

২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

চিনের পথেই বদ মেজাজি ট্রাম্পকে মোক্ষম জবাব ভারতের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 17, 2018 10:42 am|    Updated: June 17, 2018 10:42 am

New Delhi's decision to increase tariff for US products

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একেই হয়ত বলে ‘ইটের বদলা পাটকেলে দেওয়া’৷ বাণিজ্যিক যুদ্ধে সম্মুখ সরমে এবার ভারত-আমেরিকা। বস্তুত, মার্কিন মুলুককে সবক শেখাতে এবার বেজিংয়ের পথেই হাঁটল ভারত৷ ৩০টি মার্কিন পণ্যের উপর ৫০ শতাংশ শুল্ক বাড়ানোর হুঁশিয়ারি দিল নয়াদিল্লি। সম্প্রতি ভারতীয় পণ্যের উপর শুল্ক বসিয়ে ২৪১ মিলিয়ন ডলার বা ভারতীয় মুদ্রায় ১৬৫০ কোটি টাকা আদায় করা শুরু করেছে ট্রাম্প প্রশাসন।  তারই জবাব দিল ভারত৷ সেইমতো তালিকা প্রস্তুত করে ডব্লিউটিও-তে পাঠিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার।

[মস্কোয় পথ দুর্ঘটনায় ছড়াল আতঙ্ক, আহত দুই ফুটবল সমর্থক-সহ ৮]

চলতি বছরের মার্চে ভারতীয় ইস্পাত ও অ্যালুমিনিয়ামের উপর অতিরিক্ত শুল্ক চাপিয়েছিল আমেরিকা। এরফলে লোকসানের মুখে পড়তে হয় এদেশের ব্যবসায়ীদের। আর বিপুল অর্থ লাভ করে আমেরিকা। তারই পাল্টা ৩০টি মার্কিন পণ্যের উপর ৫০ শতাংশ শুল্ক বাড়াল ভারত। উল্লেখ্য, মে মাসেই আপেল, বাদাম এবং মোটরসাইকেল-সহ ২০টি মার্কিন পণ্যের উপর শুল্ক বাড়িয়েছিল ভারত। যা নিয়ে জি-৭ বৈঠকের পর সাংবাদিক সম্মেলনে মোদি সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবার নয়াদিল্লির এই নতুন সিদ্ধান্তে ট্রাম্প প্রশাসনের প্রতিক্রিয়া কী হয়, সেটাই দেখার। এর আগেই চিনও সেদেশে আমদানী হওয়া মার্কিন পণ্যের উপর শুল্ক বৃদ্ধির হুঁশিয়ারি দেয়।

[ইদে যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার কচিকাঁচাদের মুখে ফুটল হাসি, সৌজন্যে শিখ সংস্থা]

২০১৬-১৭ অর্থবছরে ভারত মোট ৪২.২১ বিলিয়ন ডলার মূল্যের পণ্য আমেরিকায় রপ্তানি করেছিল এবং সে দেশ থেকে ২২.৩ বিলিয়ন ডলারের পণ্য আমদানি করেছিল। আমেরিকা ও চিনের মতো দুই বৃহৎ দেশের বাণিজ্য যুদ্ধের মধ্যে ভারত অংশ নেওয়ায় তা অন্য মাত্রা পাবে বলে মনে করছে কূটনৈতিক ও বাণিজ্যিক মহল। চিন শেষ পর্যন্ত রফাসূত্র খুঁজতে আমেরিকার সঙ্গে আলোচনায় বসেছিল। কিন্তু তা ব্যর্থই। শুক্রবারই ৫,০০০ কোটি ডলারের চিনা পণ্যে ২৫% আমদানি শুল্ক বসানোর কথা ঘোষণা করে দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এই সিদ্ধান্ত জানা মাত্রই বেজিং বলেছে, তারা বাণিজ্য যুদ্ধ চায় না। তাই আলোচনায় বসতে রাজি হয়েছিল। কিন্তু এখন আমেরিকার এই সিদ্ধান্তের পরে প্রত্যাঘাতের জন্য তারা তৈরি। ট্রাম্পও তাতে না দমে পরিস্থিতির আগাম আঁচ করে বলে রেখেছেন, বেজিং বদলা নিলে, এ বার ১০,০০০ কোটি ডলারের চিনা পণ্যে শুল্ক বসাবে ওয়াশিংটন। তার প্রাথমিক তালিকাও মোটামুটি তৈরি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে