BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ধ্বংসাত্মক ক্ষেপণাস্ত্রের সফল উৎক্ষেপণ, উচ্ছ্বসিত কিম জং

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 23, 2016 2:13 pm|    Updated: June 23, 2016 2:27 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নয়া মাঝারি পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের জন্য বৃহস্পতিবার উত্তর কোরিয়ার সর্বাধিনায়ক কিম জং উন সে দেশের বৈজ্ঞানিকদের ভূয়সী প্রশংসা করলেন। বুধবার উত্তর কোরিয়ার পূর্ব উপকূল থেকে মাঝারি পাল্লার দুটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করে পিয়ংইয়ং। ১৪০০ কিলোমিটার রেঞ্জের মিসাইলটির উৎক্ষেপণ সফল হওয়ায় এখন সহজেই মার্কিন সেনাবাহিনীর উপর হামলা চালাতে পারবে যুদ্ধবাজ উত্তর কোরিয়া, দাবি কিমের।

গত এপ্রিল মাস থেকে এই ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা করার জন্য উঠে পড়ে লেগেছিল উত্তর কোরিয়া। এর আগে ওই একই মিসাইল চারবার উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল। প্রতিবারই ব্যর্থ হয় সেই পরীক্ষা। দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনীর জয়েন্ট চিফ অফ স্টাফের দাবি, বুধবার দুটি মিসাইল উৎক্ষেপণ করা হয়। প্রথমটি ব্যর্থ হয়। ক্ষেপণাস্ত্রটি পূর্ব উপকূলের কাছে ভেঙে পড়ে। এরপর দ্বিতীয় মিসাইলটির উৎক্ষেপণ সফল হয়। আর সেই খবরেরই উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়েন দেশের সর্বোচ্চ নেতা।

এদিকে, নয়া ক্ষেপণাস্ত্রের উৎক্ষেপণ নিয়ে চিন্তিত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া। কারণ, এই ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লার আওতায় গোটা এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগর চলে আসবে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। চলতি বছরের গোড়ায় পিয়ংইয়ং চতুর্থ পরমাণু বোমার পরীক্ষা করেছিল বলে অভিযোগ। একইসঙ্গে, পরমাণু বোমা বহনকারী দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রেরও পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করে উত্তর কোরিয়া। বুধবারের পরীক্ষার পর স্বাভাবিকভাবেই উত্তর কোরিয়াকে তীব্র আক্রমণ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

দক্ষিণ কোরিয়ার দাবি, প্রথম ব্যালিস্টিক মিসাইলটি ভেঙে পড়ার প্রায় দুই ঘণ্টা পর উৎক্ষেপণ করা দ্বিতীয় ক্ষেপণাস্ত্রটি সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় এক হাজার কিলোমিটার উঁচুতে ওঠে এবং প্রায় ৪০০ কিলোমিটার দূরে গিয়ে আঘাত হানে। এটিই এখনও পর্যন্ত উত্তর কোরিয়ার সবচেয়ে ‘ধ্বংসাত্মক’ পরীক্ষা বলে মনে করা হচ্ছে। এক বিবৃতিতে মার্কিন বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র জন কারবি এই ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের নিন্দা করেন। নিন্দা করেছেন প্রতিবেশী জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবেও।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement