BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পরপর বিস্ফোরণ যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ায়, মৃত কমপক্ষে ৪০

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: April 29, 2020 11:46 am|    Updated: April 29, 2020 11:46 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পরপর বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়া। তেলের ট্যাংকারে ঘটা একটি বিস্ফোরণে নিহত হয়েছে কমপক্ষে ৪০ জন মানুষ। তারপর কয়েক ঘণ্টা পরই ফের প্রচণ্ড শব্দে কেঁপে উঠে চারপাশ।

[আরও পড়ুন: আক্রান্ত একাধিক দেহরক্ষী, করোনার ভয়েই সদলবলে অজ্ঞাতবাসে কিম!]

তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে খবর, মঙ্গলবার দু’টি বিস্ফোরণই ঘটেছে উত্তর সিরিয়ার আফরিন শহরে। নিহতদের মধ্যে কমপক্ষে ১১টি শিশু রয়েছে। জখম হয়েছেন আরও অন্তত ৫০ জন। এই ধামাকা  নিছক দুর্ঘটনা নয়। তেলের ট্যাংকার লক্ষ্য করো বোমা ফেলা হয়েছিল। যার জেরে জোরাল বিস্ফোরণ ঘটে, আগুন ছড়িয়ে পড়ে। আগুনের লেলিহান শিখা চারপাশে ছড়িয়ে পড়ার আগেই অগ্নিপ্রতিরোধ দপ্তরের কর্মী-অফিসারেরা আগুন নিভিয়ে ফেলেন। বিস্ফোরণের জন্য সিরিয়ান কুর্দিশ YPG মিলিশিয়াকে দায়ী করেছে তুরস্ক সরকার। সম্প্রতি সিরিয়ায় এত ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয়নি। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে উত্তর সিরিয়ার রাকায়, যা একসময় ইসলামিক স্টেটের গড় ছিল, গাড়িবোমা বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৮ জন নিহত হয়েছিলেন। জখম হন আরও একাধিক। মৃত ৮ জনের মধ্যে একজন মহিলা এবং একটি শিশুও রয়েছে।        

উল্লেখ্য, এই মুহূর্তে সিরিয়ায় ক্ষমতা দখলের বেনজির লড়াই চলছে। আর এই যুদ্ধের মাশুল গুনতে হচ্ছে নিরীহ নাগরিকদের। গত বছর পশ্চিম এশিয়ায় নয়া সমীকরণ তৈরি করে সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যাহারের কথা ঘোষণা করেছিল। এর প্রতিবাদে পদত্যাগ করেন প্রতিরক্ষা সচিব জিম ম্যাটিস বা ‘ম্যাড ডগ’ ম্যাটিস।  তাঁর অভিযোগ, যুদ্ধক্ষেত্রে সহযোগীদের একা ফেলে প্রস্থান করেছেন ট্রাম্প। এদিকে, মার্কিন ফৌজ পিছু হটতেই উত্তর সিরিয়ার কুর্দ মিলিশিয়া নিয়ন্ত্রিত এলাকায় জমায়েত শুরু করে তুরস্কের মদতপুষ্ট বিদ্রোহীরা।

মার্কিন ফৌজ সরে যেতেই ২০১৮ সাল থেকে উত্তর সিরিয়ায় কুর্দ মিলিশিয়া ‘কুর্দিশ পিপলস প্রোটেকশন ফোর্সেস’-এর (YPG) নিয়ন্ত্রণে থাকা এলাকাগুলি দখল করতে শুরু করে তুরস্ক। উল্লেখ্য, ইসলামিক স্টেট ও আসাদ সরকারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে YPG-র নেতৃত্বে আমেরিকার পাশে দাঁড়িয়েছে ‘সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস’ (SDF)। এদিকে YPG-কে জঙ্গি সংগঠন ঘোষণা করেছে তুরস্ক। প্রেসিডেন্ট এরদোগানের অভিযোগ, তুরস্কে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মদত দিচ্ছে SDF। ‘কুর্দিস্তান’ গঠনে কুর্দ জঙ্গিদের হাতিয়ার দিচ্ছে তারা। ফলে ‘আঙ্কল স্যাম’ পাততাড়ি গোটাতেই সিরিয়ায় কুর্দিশ বাহিনীর উপর হামলা শুরু করে তুরস্কের সেনা। এছাড়াও আসাদ ও রাশিয়ার সেনার বিপক্ষে একা মাঠে নামতে হচ্ছে SDF-কে।

[আরও পড়ুন: মিলছে না PPE, সুরক্ষার দাবিতে নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ জার্মান চিকিৎসকদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement