BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ইমরান খানের পদত্যাগের দাবিতে প্রবল বিক্ষোভ, উত্তাল পাকিস্তান

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: October 17, 2020 12:30 pm|    Updated: October 17, 2020 12:41 pm

Opposition put up ‘big power show’ against PM Imran Khan and Pak Army in Gujranwala। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ক্রমশই ক্ষোভ বাড়ছে সেদেশে জনগণের মনে। আর এই বিষয়টি অনুভব করেই একজোট হয়েছে বিরোধীরা। গত সেপ্টেম্বর মাসে ৯টি রাজনৈতিক দল মিলে গঠন করেছে পাকিস্তান ডেমোক্র্যাটিক মুভমেন্ট। শুক্রবার পাঞ্জাব প্রদেশের লাহোর শহরের কাছে অবস্থিত গুজরানওয়ালা স্টেডিয়ামে তাদের ডাকা সভা থেকে ইমরানের সরকারকে উৎখাতের ডাক উঠল। আর তাতে সমর্থন জানালেন স্টেডিয়ামে জড়ো হওয়া অসংখ্য মানুষ।

people gathered in Pakistan

বেশ কিছুদিন ধরে ইমরান খান (Imran Khan)-এর সরকার ও সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে জনরোষ বাড়ছিল পাকিস্তানে। সেই ক্ষোভকে কাজে লাগিয়ে শুক্রবার গুজরানওয়ালা (Gujranwala) স্টেডিয়ামে একটি জমায়েতের ডাক দেয় পাকিস্তানের তিনটি প্রধান বিরোধী দল নওয়াজ শরিফের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান মুসলিম লিগ, পাকিস্তান পিপলস পার্টি ও জমিয়েত উলেমা-ই-ইসলাম-ফাজি। কয়েক হাজার মানুষের সেই সভা থেকে পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর মদতে ইমরান ক্ষমতায় এসেছে বলে দাবি করা হয়। বিরোধী নেতারা একসুরে অভিযোগ তোলেন, অন্যায়ভাবে ইমরান খানকে ২০১৮ সালে হওয়া জাতীয় নির্বাচনে জিতিয়েছে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। তারপর থেকে তাদের কথা শুনেই চলছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। নওয়াজ শরিফ তো সোজাসুজি পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই ও সেনাবাহিনীর চাকর বলেছেন ইমরানকে।

[আরও পড়ুন: ‘আল্লাহু আকবর’ ধ্বনি দিয়ে প্যারিসে শিক্ষকের মাথা কাটল চেচেন ‘জেহাদি’ ]

গতকালের সভা থেকে প্রায় একই অভিযোগ জানিয়ে তাঁর মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ বলেন, ‘দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য আজ আমরা রাস্তায় নেমেছি। দেশজুড়ে চলা অবিচার, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি ও বেকারত্বের বিরুদ্ধে লড়াই করছি। ‘

এদিকে বিরোধীদের এই আন্দোলনে যথেষ্ট জনসমর্থন দেখতে পেয়েই চিন্তিত নন ইমরান খান। এপ্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমার জয় নিয়ে এই ধরনের অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যে। আমাকে দেশের জনগণ নির্বাচিত করেছে, সেনাবাহিনী নয়। তাই বিরোধীদের আন্দোলন নিয়ে কোনও চিন্তা নেই। আসলে বিরোধী নেতাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দুর্নীতির মামলা রয়েছে, সেগুলি প্রত্যাহারের জন্যই আমার উপর চাপ তৈরির চেষ্টা চলছে।’

[আরও পড়ুন: ‘ভাগ্যবান’! ভারতীয় খাবারে মজে মন্তব্য তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের, নিমেষে ভাইরাল তাঁর টুইট]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে