BREAKING NEWS

১৬ মাঘ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

অবশেষে দেশে ফিরছেন নওয়াজ শরিফ, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে পাসপোর্ট দিল পাকিস্তান

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: April 26, 2022 8:44 am|    Updated: April 26, 2022 8:44 am

Pakistan Issues Passport To Ex-PM Nawaz Sharif To Return | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অবশেষে দেশে ফিরছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ (Nawaz Sharif)। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে শরিফের নামে পাসপোর্ট ইস্যু করেছে ইসলামাবাদ। বর্তমানে চিকিৎসার জন্য লন্ডনে রয়েছেন নওয়াজ। ইমরান খান সরকারের পতনের পরই তাঁর দেশে ফেরার জল্পনা বাড়ছিল।

[আরও পড়ুন: আরও একটি ৯/১১ হামলার ছক ছিল লাদেনের! প্রকাশ্যে মার্কিন ফৌজের গোপন নথি]

‘দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন’ সংবাদপত্রকে উদ্ধৃত করে পিটিআই জানিয়েছে, নওয়াজ শরিফের নামে পাসপোর্ট ইস্যু করেছে তাঁর ভাই শাহবাজ শরিফের সরকার। ‘জিও নিউজ’ সূত্রে খবর, জরুরি ভিত্তিতে ‘অর্ডিনারি’ অর্থাৎ সাধারণ ক্যাটেগরিতে পাসপোর্টটি জারি করা হয়েছে। ফলে কূটনৈতিক স্তরে বিশেষ কোনও সুবিধা পাবেন না নওয়াজ। বিশ্লেষকদের মতে, নওয়াজের দেশে ফেরার বিষয় নিয়ে বেশি জলঘোলা হোক, তা চাইছেন না পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ। তাই একাধিক দুর্নীতি মামলায় অভিযুক্ত দাদার জন্য এখনই কূটনৈতিক পাসপোর্ট জারি করছেন না তিনি।

কয়েকদিন আগেই জানা গিয়েছিল যে, ইদের পরই দেশে ফিরছেন পাকিস্তানের (Pakistan) প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ (Nawaz Sharif)। এই খবরের সত্যতা স্বীকার করেছিলেন তাঁর দল পাকিস্তান মুসলিম লিগ (নওয়াজ)-এর নেতা মিয়াঁ জাভেদ লতিফও। নওয়াজের প্রত্যাবর্তন বাস্তবায়িত হলে পাকিস্তানের রাজনীতিতে এক নতুন মোড় আসবে বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

বর্তমানে লন্ডনে রয়েছেন নওয়াজ শরিফ। তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির মামলা চলছে। ২০১৯ সালে চিকিৎসার জন্য নওয়াজকে লন্ডন যাওয়ার অনুময়ী দেয় লাহোর হাই কোর্ট। তারপর আর দেশে ফেরেননি মুসলিম লিগের সুপ্রিমো। নির্ধারিত সময়ে দেশে না ফেরায় ২০২১ সালে নওয়াজ শরিফকে ‘ঘোষিত অপরাধী’র তকমাও দেয় ইসলামাবাদ হাই কোর্ট। পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছে গিয়েছিল যে নিজের ও কন্যা মরিয়ম নওয়াজের প্রাণনাশের আশঙ্কা প্রকাশ করেন নওয়াজ শরিফ। আর সেবার তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও পাক সেনার বিরুদ্ধে তোপ দাগেন তিনি। কিন্তু বর্তমানে পরিস্থিতি পালটেছে। প্রধানমন্ত্রী পদে এখন নওয়াজের ভাই শাহবাজ শরিফ।

উল্লেখ্য, পানামা পেপার্স মামলায় ২০১৭ সালে পাকিস্তানি সুপ্রিম কোর্টের রায়ে গদি চলে গিয়েছিল নওয়াজের। তারপরই তাঁর বিরুদ্ধে একগুচ্ছ দুর্নীতি মামলার তদন্ত শুরু করে ইমরান সরকার। ২০১৮ সালে অ্যাকাউন্টেবিলিটি কোর্ট আল-আজিজিয়া স্টিল মিল দুর্নীতি মামলায় নওয়াজকে সাত বছরের কারাবাসের সাজা দেয়। পাশাপাশি অ্যাভেনফিল্ড সম্পত্তি সংক্রান্ত মামলায় সব মিলিয়ে মোট ১১ বছরের জেল হয় তাঁর। তার উপরে ৮ মিলিয়ন পাউন্ড জরিমানাও হয়।

[আরও পড়ুন: জয়ের পরই বিরোধিতার মুখে ম্যাক্রোঁ, প্যারিসের রাস্তায় পুলিশের গুলিতে নিহত ২ বিক্ষোভকারী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে