৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অনুরোধেও হল না কাজ। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দকেও নিজেদের আকাশসীমা ব্যবহার করার অনুমতি দিল না পাকিস্তান। আগামী ৯ থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর আইসল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড এবং স্লোভানিয়া সফরে যাবেন রাষ্ট্রপতি কোবিন্দ। পাকিস্তানের কাছে রাষ্ট্রপতির বিমান তাদের আকাশসীমা দিয়ে যাওয়ার অনুমতি চেয়েছিল ভারত। কিন্তু, ভারতের সেই অনুরোধ খারিজ করে দিয়েছে পাক সরকার। পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি একথা জানিয়েছেন। পাকিস্তানের সরকারি টিভি চ্যানেল পিটিভি-কে তিনি জানিয়ে দেন, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ভারতের রাষ্ট্রপতিকে তাদের আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি দেননি।

[আরও পড়ুন: ‘এভাবেও ফিরে আসা যায়’, হাজারও ব্যর্থতা সামলে সাফল্যের আশায় বুক বাঁধছে ইসরো]

বালাকোট এয়ারস্ট্রাইকের পর ভারতের জন্য নিজেদের আকাশসীমা পুরোপুরি বন্ধ করে দেয় পাকিস্তান।  সেটা ছিল ২৬ ফেব্রুয়ারি। তারপর থেকে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল পাকিস্তানের অধিকাংশ এয়ার রুট। বালাকোট হামলার প্রায় ১৪০ দিন পর আকাশপথ খোলে পাকিস্তান। এই ১৪০ দিনে প্রায় ৪৯১ কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে লোকসানের ভারে ধুঁকতে থাকা এয়ার ইন্ডিয়ার৷ দ্বিপাক্ষিক আলোচনার পর আকাশপথ খুললেও, ভারত ৩৭০ ধারা বাতিলের পর আবার তা বন্ধ করে পাকিস্তান। এর ফলে, মধ্যপ্রাচ্যের কিছু দেশে যেতে অসুবিধা হয় ভারতের। যেতে হয় অন্য রুট দিয়ে ঘুরে। এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকেও পাকিস্তানের উপর দিয়ে ওড়ার অনুমতি দেয়নি পাক সরকার। শেষপর্যন্ত সাংহাই কোঅপারেশনে বৈঠকে যোগ দিতে ঘুরপথে পাকিস্তান যেতে হয় প্রধানমন্ত্রীকে। এবার অনুমতি দেওয়া হল না রাষ্ট্রপতিকেও। এবার আইসল্যান্ড যেতেল হলে ঘুরপথে যেতে হবে রাষ্ট্রপতি কোবিন্দকে।

[আরও পড়ুন: একা ভারত নয়, চাঁদে নামার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়েছে বিশ্বের তাবড় তাবড় দেশ]

উল্লেখ্য, ৩৭০ ধারা বাতিলের পর ভারত-পাক কূটনৈতিক সম্পর্ক এক্কেবারে তলানিতে। দু’দেশের মধ্যে যাবতীয় তথ্যগত এবং বাণিজ্যিক সম্পর্ক বন্ধ। নিজেদের ক্ষতিসাধন করেও ইমরান খানের সরকার ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে। আন্তর্জাতিক মহলেও আবেদন জানিয়েছে। তাতে ফল না পেয়ে মরিয়া আচরণ করছে পাক সরকার। রাষ্ট্রপতি কোবিন্দকে ওড়ার অনুমতি না দেওয়াটাও মরিয়া একটি পদক্ষেপ।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং