Advertisement
Advertisement

অবাধে মিছিল জামাত জঙ্গিদের, দেখেও নীরব পাক প্রশাসন

ফের সন্ত্রাস প্রশ্নে পাকিস্তানের অবস্থান নিয়ে ধোঁয়াশা।

Pakistan sham exposed, JuD holds rally in Peshawar
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:January 30, 2018 2:57 pm
  • Updated:January 30, 2018 2:57 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুখে ইজরায়েল বিরোধী স্লোগান। পাকিস্তানে মাটিতে মিছিল করল নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জামাত-উদ-দাওয়া (জেইউডি)। মিছিল থেকেই পাক প্রধানমন্ত্রী শাহিদ খাকান আব্বাসিকে বোবা কালা অন্ধ বলে আক্রমণও করল জেইউডি নেতা আবদুল রহমান মাক্কি। মোটরসাইকেলে চড়ে ইজরায়েলের পতাকা পুড়িয়ে মিছিল ঘুরল গোটা পেশোয়ার শহর। যদিও রাষ্ট্রসংঘ মনোনীত জঙ্গি সংগঠনের এহেন দৌরাত্মে কোনও হেলদোল দেখা গেল না পাক প্রশাসনের অভ্যন্তরে। তাই সংগঠন প্রধান হাফিজ সইদ আদৌ গৃহবন্দি কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। একই সঙ্গে এটাও নিশ্চিত যে সন্ত্রাস প্রশ্নে পাকিস্তান এখনও আন্তর্জাতিক সিদ্ধান্ত মানছে না

[‘ব্রিটেনে আমি খুব জনপ্রিয়’, ফের নিজের গুণগান ডোনাল্ড ট্রাম্পের]

সম্প্রতি এক সমাবেশ থেকে প্রধানমন্ত্রী আব্বাসি ও নওয়াজ শরিফকে লক্ষ্য করে তোপ দাগেন মাক্কি। বলেন, আব্বাসি ও নওয়াজ শরিফের দেশ থাকার কোনও অধিকার নেই। ওঁদের পাকিস্তান ছেড়ে চলে যেতে হবে। তাহলে সঠিক পথে পাকিস্তানকে নিয়ে যেতে পারবে জেইউডি। শাসকদল পাকিস্তান মুসলিম লিগ রীতিমতো নগ্ন হয়ে পড়েছে। এমনকী, দেশে চালানোর জন্য যে নীতিমালা রেখেছে তাও কার্যকরী নয়। আফগানিস্তানের সঙ্গে নানাভাবে লড়াই জিইয়ে রেখে অপদার্থতার পরিচয় দিয়েছে। একের পর এক ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশনেতারা। কখনও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে সমর্থন জানিয়েছে। কখনও খাতেম ই নবুয়তের উপরে আঘাত হেনেছে। ভারতের সঙ্গে সখ্যতা বজায় রেখে কাশ্মীরীদের সঙ্গে বিশ্বাঘাতকতা করেছে। হাফিজ সইদকে গৃহবন্দি করে রেখেছে।

Advertisement

উল্লেখ্য, অনেকদিন আগেই জঙ্গি সংগঠন জামাত-উদ-দাওয়াকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে পাকিস্তান। তারপরেও সেই পাকিস্তানের মাটিতেই জঙ্গির পোশাকে বন্দুক ব্যানার হাতে মিছিল করল জেইউডি সদস্যরা। এই ঘটনায় পাকিস্তান প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। কেননা পাক সেনাবাহিনীর উপস্থিতিতেই সমাবেশে বক্তব্য রেখেছেন মাক্কি। এদিকে রাষ্ট্রসংঘ মনোনীত জঙ্গি সংগঠনের তালিকায় নাম রয়েছে জামাত-উদ-দাওয়ার। সংগঠনের নেতা হাফিজ সইদ ২৬/১১-র মুম্বই হামলার মূল চক্রী। এটা প্রমাণ হয়ে যাওয়ার পর তাকে গৃহবন্দি করে রেখেছে পাকিস্তান। তারপরেও জামাত উদ দাওয়া প্রশাসনের নাকের ডগায় দাঁড়িয়ে দেশের রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই সন্ত্রাস প্রশ্নে পাকিস্তানের অবস্থান নিয়ে ফের প্রশ্ন উঠেছে।

Advertisement

[নাবালিকা পড়ুয়ার হিজাবে ‘না’, নেটদুনিয়ায় কটাক্ষের শিকার প্রধান শিক্ষিকা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ