BREAKING NEWS

১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

খাশোগ্গি হত্যায় ‘লিপ্ত’ সৌদি যুবরাজের সঙ্গে সাক্ষাৎ মোদির

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: November 30, 2018 10:59 am|    Updated: November 30, 2018 10:59 am

PM Modi meets Saudi crown prince

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন উপলক্ষে শুক্রবার সৌদি আরবের যুবরাজ মহম্মদ বিন সলমনের (এমবিএস) সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেব প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। অর্থনীতি, সংস্কৃতি ও জ্বালানি-সহ একাধিক বিষয়ে আলোচনা হয় দু’জনের মধ্যে। পাশাপাশি রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের সঙ্গেও আলোচনায় বসেন মোদি। এদিন চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গেও দেখা করবেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়াও ত্রিপাক্ষিক বৈঠকে ট্রাম্প ও জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের সঙ্গে বসবেন মোদি। তবে প্রথামাফিক বৈঠক হলেও মোদি-এমবিএস সাক্ষাৎ নিয়ে দেখা দিয়েছে বিতর্ক।

[পাকিস্তানের মাটিতে খলিস্তানপন্থী নেতার সঙ্গে সিধুর ছবি, তীব্র সমালোচনা বিজেপির]

জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনস আইরেসে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-সহ বিভিন্ন নেতার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে করবেন মোদি। অন্য রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গেও তাঁর আলাদা করে কথা হবে। আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে সার্বিক উন্নয়নের তাগিদে বিভিন্ন সমস্যা ও ইস্যু নিয়ে তিনি বিশ্বনেতাদের সঙ্গে আলোচনা করতে এসেছেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তবে এমবিএস-এর সঙ্গে সাক্ষাৎ নিয়ে কিছুটা হলে কূটনৈতিক মঞ্চে জলঘোলা হয়েছে। কারণ সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগ্গি হত্যায় লিপ্ত থাকার অভিযোগ উঠেছে সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে। খাশোগ্গি হত্যায় বিস্ফোরক খোলসা করে কুখ্যাত মার্কিন গুপ্তচর সংস্থা সিআইএ। সংস্থাটির দাবি, স্পষ্ট ভাষায় খাশোগ্গির ‘মুখ বন্ধ’ করার নির্দেশ দিয়েছিলেন এমবিএস। সেই নির্দেশ মেনেই ঘাতক বাহিনী হত্যা করে সৌদি রাজপরিবারের সমালোচক খাশোগ্গিকে। এহেন পরিস্থিতিতে এমবিএস-এর সঙ্গে সম্পর্ক দৃঢ় করার কথা বলে সমালোচনার মুখে পড়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

এদিকে, ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়ার যুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি হওয়ায় রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে পূর্ব নির্ধারিত দ্বিপাক্ষিক বৈঠকটি বাতিল করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের প্রতিবাদেই বৈঠক বাতিল করলেন ট্রাম্প। যদিও রাশিয়ার দাবি ছিল, বৈঠক হচ্ছেই। রাশিয়ার সঙ্গে পুরোদমে সংঘর্ষে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট পেত্রো পোরোশেঙ্কো। তাঁর যুক্তি, সীমান্তে ক্রমশ সামরিক উপস্থিতি বাড়াচ্ছে রাশিয়া। তাই চুপ করে বসে থাকবে না ইউক্রেনও। রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধে নামার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যাটারির দুটি ইউনিট ক্রিমিয়া উপদ্বীপের দিকে পাঠাচ্ছে রাশিয়া। তৈরি হচ্ছে রুশ যুদ্ধজাহাজও। এই পরিস্থিতে ট্রাম্প-পুতিন বৈঠক বাতিল তাৎপর্যপূর্ণ।

[এবার ব্রিটিশ মুদ্রায় দেখা যেতে পারে আচার্য জগদীশচন্দ্রের ছবি, কীভাবে জানেন?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে