BREAKING NEWS

২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৭ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘দরিদ্র দেশ থেকে বিশ্ব অর্থনীতিতে পঞ্চমে’, রাষ্ট্রসংঘে ভারত বন্দনা জয়শংকরের

Published by: Biswadip Dey |    Posted: September 24, 2022 8:32 pm|    Updated: September 24, 2022 8:34 pm

S Jaishankar hails India's economy growth। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ব্রিটিশদের শোষণের ফলে বিশ্বের অন্যতম দরিদ্র দেশ হয়ে গিয়েছিল ভারত। সেখান থেকে আজ বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম অর্থনীতি হয়ে উঠেছে নয়াদিল্লি। এভাবেই স্বাধীনতাপ্রাপ্তির ৭৫ বছরে দেশের অর্থনৈতিক উন্নতির বর্ণনা দিলেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর (S Jaishankar)। রাষ্ট্রসংঘে (UN) ‘[email protected]’ নামে একটি অনুষ্ঠানে ভারতের সঙ্গে রাষ্ট্রসংঘের অংশীদারি নিয়ে বলতে গিয়েই এই প্রসঙ্গ উঠে এল তাঁর মুখে।

জয়শংকরের কথায়, ”অষ্টাদশ শতাব্দীতে ভারতকে বিশ্বের জিডিপির এক চতুর্থাংশ হিসেবেই ধরা হত। সেখান থেকে বিংশ শতাব্দীর মাঝখানে এসে ঔপনিবেশিকতার চাপে পড়ে অন্যতম দরিদ্র দেশে পরিণত হয় ভারত। স্বাধীনতার ৭৫তম বর্ষে পৌঁছে ভারত আপনাদের সামনে বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম অর্থনীতি হিসেবে গর্বিত হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে।”

[আরও পড়ুন: খোদ প্রধানমন্ত্রী মোদির উপর হামলার ছক ছিল PFI-এর, বিস্ফোরক দাবি ইডির]

এরই পাশাপাশি ডিজিটাল টেকনোলজির অভাবনীয় সাফল্যের কথাও বলেন জয়শংকর। তিনি বলেন, ”সাম্প্রতিক সময়ে ডিজিটাল টেকনোলজির দৌলতে খাদ্য নিরাপত্তার ক্ষেত্রে নয়া সাফল্য মিলেছে। ৩০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের লভ্যাংশ ডিজিটালি বিতরণ করা সম্ভবপর হয়েছে। এর ফলে ৪০ কোটি মানুষ নিয়মিত খাবার পাচ্ছেন। এবং আমরা ২০০ কোটি টিকাও বিতরণ করতে পেরেছি।”

উল্লেখ্য, শুক্রবার নিউ ইয়র্কে বৈঠকে বসেন ব্রিকস গোষ্ঠীর বিদেশমন্ত্রীরা। রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভার অধিবেশনের পাশাপাশি ওই বৈঠকে ওয়াং ই-র সঙ্গে মঞ্চে ভাগ করতে দেখা যায় জয়শংকরকে। উপস্থিত ছিলেন রুশ বিদেশমন্ত্রী সের্গেই লাভরভও। বৈঠক শেষে যৌথ বিবৃতিতে সন্ত্রাসবাদের তীব্র নিন্দা করেন সদস্য দেশগুলির বিদেশমন্ত্রীরা।

বৈঠকের আগে রাষ্ট্রসংঘে সন্ত্রাসবাদীদের আড়াল করার জন্য চিনকে একহাত নেন জয়শংকর। তিনি বলেন, “ভয়ংকর সন্ত্রাসবাদীদের আড়াল করছে কয়েকটি দেশ।” এদিন নিরাপত্তা পরিষদে ইউক্রেন ইস্যুতে ‘দোষীদের শাস্তি এড়িয়ে যাওয়া’র প্রসঙ্গে জয়শংকর বলেন, “বিশ্বের ভয়ানক জঙ্গিদের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার ক্ষেত্রে এই কক্ষেই আমরা দেখেছি কীভাবে দোষীরা শাস্তি এড়িয়ে গিয়েছে।”

[আরও পড়ুন: মোদি জমানায় ইডির নজরে থাকা অধিকাংশ নেতাই বিজেপি-বিরোধী, তদন্তের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে