৫ ফাল্গুন  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিদেশনীতি নিয়ে উদ্বিগ্ন মার্কিন কংগ্রেস। বিশেষ করে ইরানের সঙ্গে সংঘাতের আবহে যুদ্ধের সিঁদুরে মেঘ দেখছেন অনেকে। ফলে বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের যুদ্ধ ঘোষণার ক্ষমতায় রাশ টেনে নয়া প্রস্তাব পাশ করল সেনেট। 

এদিন, মার্কিন কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সেনেটে ‘ইরান ওয়ার পাওয়ার রেজলিউশন’ বা ‘যুদ্ধ ঘোষণার ক্ষমতা’ শীর্ষক প্রস্তাবটি ৫৫-৪৫ ভোট পাশ হয়ে যায়। ফলে এবার থেকে প্রেসিডেন্টের মর্জি মাফিক সব হবে না। ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ বাধিয়ে পরে ব্যাখ্যা দেওয়া চলবে না। আগাম অনুমতি নিতে হবে। গত মাসে ইরানের সঙ্গে যুদ্ধের আবহেই ‘ওয়ার পাওয়ার রেজলিউশন’ বা ‘যুদ্ধ ঘোষণার ক্ষমতা’ শীর্ষক এমনই একটি প্রস্তাব পাশ করেছিল ‘হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভস’। উল্লেখ্য, ডেমোক্র্যাট সংখ্যাগরিষ্ঠ হাউসের এই প্রস্তাবে প্রেসিডেন্টের স্বাক্ষরের প্রয়োজন নেই। ফলে এক অর্থে প্রেসিডেন্টও তা মানতে বাধ্য নয়। সেবার মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি বলেছিলেন, প্রেসিডেন্টকে বুঝিয়ে দেওয়া জরুরি ছিল। এই বার্তাটা মার্কিন কংগ্রেসের। উত্তেজনা, হিংসা থামিয়ে ইরানে অবিলম্বে শান্তি ফেরাতে হবে। আগামী দিনে মার্কিন নাগরিক ও মূল্যবোধের অপচয় রুখবে।

এদিকে, নাম এক হলেও সেনেটে আনা প্রস্তাবটি ভিন্ন। এবার উচ্চকক্ষে পাশ হওয়ার পর ভোটাভুটির জন্য এই প্রস্তাবটি যাবে মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ ‘হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভস’-এ। সেখানে পাশ হলে প্রেসিডেন্টের কাছে ওই প্রস্তাবটিকে পাঠানো হবে। 
এই প্রস্তাবের তীব্র বিরোধিতা করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগেই একটি টুইট করে তিনি বলেছিলেন, ‘দেশের নিরাপত্তার কথা মাথা রেখেই সেনেটের উচিত এই প্রস্তাব খারিজ করে দেওয়া। সবারই এটা জেনে রাখা ভাল যে আমার হাত বেঁধে দেওয়া হলে ইরানকে আটকানো কঠিন হয়ে পড়বে।’

[আরও পড়ুন: পবিত্র মসজিদের উপর উড়ল লাল পতাকা, যুদ্ধ ঘোষণা ইরানের!]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং