১৭  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মোদির চাপে আদানিকে শ্রীলঙ্কায় বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরির বরাত! প্রতিবাদের ডাক লঙ্কাবাসীর

Published by: Anwesha Adhikary |    Posted: June 15, 2022 7:26 pm|    Updated: June 15, 2022 7:26 pm

Sri Lanka residents call for protest against Adani group getting wind power contract | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় শিল্পপতি গৌতম আদানির বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করেছেন শ্রীলঙ্কার বিদ্যুৎ বিভাগের প্রধান। তিনি বলেছেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) চাপে পড়েই বায়ুশক্তি উৎপাদন কেন্দ্র তৈরির বরাত দেওয়া হয়েছিল আদানি গোষ্ঠীকে। এই কথা প্রকাশ্যে আসার পরে ক্ষোভে ফেটে পড়েছে দ্বীপরাষ্ট্র (Sri Lanka)। আগামী ১৬ জুন ব্যাপক প্রতিবাদ কর্মসূচির ডাক দিয়েছে সেদেশের জনতা।

সংসদীয় কমিটির প্রশ্নের উত্তরে দ্বীপরাষ্ট্রের বিদ্যুৎ বোর্ডের প্রাক্তন প্রধান এমএমসি ফার্ডিনান্ডো বলেন, “রাজাপক্ষে (শ্রীলঙ্কা প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষে) আমাকে বলেছিলেন, ৫০০ মেগাওয়াটের বায়ুশক্তি উৎপাদন কেন্দ্র তৈরির দায়িত্ব আদানি গ্রুপকে দিতে চান মোদি। বেশ জোর দিয়েই সেই প্রস্তাব করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।” এই কথা প্রকাশ্যে আসতেই বিতর্ক শুরু হয়ে যায়। গোটা বিষয়টি অস্বীকার করে বিবৃতি দেন গোতাবায়া রাজাপক্ষে। পরে এই মন্তব্য প্রত্যাহার করে নেন ফার্ডিনান্ডো। প্রসঙ্গত, আদানি গ্রুপের কর্ণধার গৌতম আদানির সঙ্গে মোদির সুসম্পর্কের কথা কারও অজানা নয়। 

[আরও পড়ুন: ভিখারির দশা পাকিস্তানের, টাকা বাঁচাতে নাগরিকদের চা না খাওয়ার অনুরোধ মন্ত্রীর]

আগামী ১৬ জুন প্রতিবাদ কর্মসূচি ঘোষণা করে ইতিমধ্যেই পোস্টার বানানো শুরু হয়ে গিয়েছে। দ্বীপরাষ্ট্রের রাজধানী কলম্বোতে দুপুর দু’টো নাগাদ প্রতিবাদীরা জড়ো হবেন বলে জানা গিয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়াতেও ছড়িয়ে গিয়েছে প্রতিবাদের বার্তা। ইতিমধ্যেই এই ঘটনা নিয়ে সরব হয়েছিল শ্রীলঙ্কার প্রধান বিরোধী দল সমাগি জন বালাওয়াএগা। দলের তরফে বলা হয়েছিল, বেআইনি ভাবে শ্রীলঙ্কায় ঢুকছে বিদেশি শক্তি। নরেন্দ্র মোদির ‘কুখ্যাত বন্ধু’দের প্রশ্রয় দিচ্ছেন গোতাবায়া (Gotabaya Rajapaksa)।

গোটা ঘটনা জেনে প্রতিক্রিয়া দিয়েছে আদানি গোষ্ঠী (Adani Group)। এই বিতর্কের কারণে অত্যন্ত হতাশ, এমনই বলা হয়েছে আদানিদের তরফে। গোষ্ঠীর এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, “প্রতিবেশীদের প্রয়োজনের কথা মাথায় রেখেই শ্রীলঙ্কায় বিনিয়োগ করতে চেয়েছিলাম আমরা। দুই দেশের মধ্যে বহুদিন ধরেই সুসম্পর্ক রয়েছে। দায়িত্বশীল শিল্পগোষ্ঠী হিসাবে এই সম্পর্ককে এগিয়ে নিয়ে যেতেই বিনিয়োগ করেছি। এই বিতর্ক হওয়ার কারণে আমরা সত্যিই খুব হতাশ।” সেই সঙ্গে তিনি আরও জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই শ্রীলঙ্কা সরকার এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছে। তবে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে এই বিতর্ক নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেওয়া হয়নি।

[আরও পড়ুন: ন্যাটোর হাতিয়ারের গুদামে আছড়ে পড়ল রুশ মিসাইল, তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ কি আসন্ন?

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে