BREAKING NEWS

১৯  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ৪ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ঢাকায় স্কুলের আড়ালে চলছে জঙ্গি তৈরির ‘কারখানা’

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 9, 2017 8:11 pm|    Updated: January 9, 2017 8:11 pm

Terror module running in Dhaka school, bust

সুকুমার সরকার, ঢাকা: ঢাকার উত্তরা ও কলাবাগান এলাকা থেকে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবির ১০ সদস্যকে গ্রেপ্তার করল এলিট ফোর্স র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন। এদের মধ্যে তিনজন ধর্মভিত্তিক ইংরেজি মাধ্যমের একটি স্কুল পরিচালনায় যুক্ত। র‌্যাব জানিয়েছে,  স্কুলের নামের ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আড়ালে জঙ্গি দলের জন্য ক্যাডার তৈরি ও সদস্য সংগ্রহ করা হত। গ্রেপ্তার হওয়া ১০ জন হল- উত্তরার ১৩ নম্বর সেক্টরের লাইফ স্কুলের প্রাক্তন অধ্যক্ষ শরিফুল ইসলাম, তার ভাগ্নে ও স্কুলের সাবেক পরিচালক জিয়াউর রহামন (৩১), বর্তমান অধ্যক্ষ মহম্মদ মিজানুর রহমান, আবু সাদাত মহম্মদ সুলতান আলরাজি ওরফে লিটন, আল মিজানুর রশিদ, জান্নাতুল মহল ওরফে জিন্নাহ, মহম্মদ কৌশিক আদনান সোবহান, মেরাজ আলী, মুফতি আবদুর রহমান বিন আতাউল্লাহ ও মহম্মদ শাহরিয়ার ওয়াজেদ খান।

সোমবার বিকালে সাংবাদিক সম্মেলনে র‌্যাবের অতিরিক্ত মহা পরিচালক আনোয়ার লতিফ খান বলেন, যাদের জঙ্গি মতবাদে আকৃষ্ট করা যাবে বলে মনে হত, কেবল তাদের সন্তানকেই লাইফ স্কুলে ভর্তি করা হত। স্কুলে অভিভাবকদেরও মোটিভেট করা হত। লাইফ স্কুলে শিক্ষার্থীর সংখ্যা শতাধিক। স্কুলের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, তারা প্লে গ্রুপ থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থী ভর্তি করে। তাদের শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হয় কেমব্রিজ ও ইসলামিক কারিকুলাম অনুযায়ী। গত বছর জুলাই মাসে জিয়াউর-সহ চারজন লাইফ স্কুল ছেড়ে দিয়ে উত্তরার ৯ নম্বর সেক্টরে ‘নলেজ হোম’ নামে একই ধরনের আরেকটি স্কুল চালু করে।

সম্প্রতি পুলিশের অভিযানে নিহত নব্য জেএমবির দুই গুরুত্বপূর্ণ নেতা অবসরপ্রাপ্ত মেজর জাহিদুল ইসলাম ও তানভীর কাদেরীর লাইফ স্কুলে যাতায়াত ছিল। ওই স্কুলের প্রাক্তন দুই শিক্ষক ফয়সাল হক ও মাঈনুল ইসলাম এখন নব্য জেএমবির হাল ধরেছে বলে ধারণা করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তাদের সন্ধানেও খোঁজ চলছে বলে জানা গিয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে