BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ১ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

স্বস্তিতে পাকিস্তান, ‘ঝুঁকিবহুল দেশে’র তালিকা থেকে ইসলামাবাদকে বাদ দিল ব্রিটেনও

Published by: Biswadip Dey |    Posted: November 15, 2022 8:34 pm|    Updated: November 15, 2022 8:34 pm

UK removes Pakistan from High Risk Third Countries list। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত মাসেই এফএটিএফের ‘ধূসর তালিকা’ থেকে বেরিয়ে আসার পর নতুন স্বস্তিতে পাকিস্তান (Pakistan)। ব্রিটিশ সরকার তাদের ‘হাই রিস্ক থার্ড কান্ট্রি’র তালিকা থেকে বাদ দিল ইসলামাবাদকে। এই তালিকায় ২৬টি দেশ রয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে ইরান, সিরিয়া, মায়ানমার প্রভৃতি দেশ। এবার সেই তালিকা থেকে বাদ গেল পাকিস্তান, নিকারাগুয়া।

এবিষয়ে ব্রিটেন সরকারের পেশ করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নয়া তালিকায় পাকিস্তান বা নিকারাগুয়াকে আর রাখা হচ্ছে না। সেই সঙ্গে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যেহেতু পাকিস্তান ফিন্যান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্সের (FATF) দেওয়া অ্যাকশন প্ল্যানগুলি পূর্ণ করে ফেলেছে, সেদিকে লক্ষ রেখেই এই পদক্ষেপ করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ভারতে খ্রিস্টান ধর্মান্তকরণে আর্থিক সাহায্য! আমাজনের বিরুদ্ধে মারাত্মক অভিযোগ আরএসএসের]

স্বাভাবিক ভাবেই এই খবরে স্বস্তি পাক প্রশাসনে। পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী বিলাওয়াল জারদারি এই নিয়ে টুইট করার সময় একে ‘সুখবর’ বলেই উল্লেখ করেছেন। উল্লেখ্য, ২০২১ সালের এপ্রিলে পাকিস্তানকে ‘হাই রিস্ক থার্ড কান্ট্রি’র তালিকার অন্তর্ভুক্ত করেছিল ব্রিটেন। সেই সময় FATF-কে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কড়া হতে দেখেই এই পদক্ষেপ করেছিল ব্রিটিশ সরকার।
অক্টোবরের শেষে ‘ধূসর তালিকা’ থেকে বেরিয়ে এসেছিল পাকিস্তান।

পাকিস্তানকে ‘ধূসর তালিকা’ থেকে মুক্তি দেওয়ার পর FATF-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, ”আমরা চাই জঙ্গিদের অর্থ জোগান ঠেকাতে এশিয়া-প্যাসিফিক এই সংগঠনটির সঙ্গে কাজ করুক পাকিস্তান।” জানা গিয়েছিল, সন্ত্রাসবাদে আর্থিক ও অন্যান্য মদত বন্ধ করতে সংস্থাটি পাকিস্তানকে (Pakistan) ৩৪টি শর্ত দিয়েছিল। সেই অ্যাকশন প্ল্যানের সব ক’টি শর্তই নাকি ইসলামাবাদ পূরণ করেছে! ওই শর্তের মধ্যে ২৭টি ছিল সন্ত্রাসে আর্থিক মদত সংক্রান্ত এবং সাতটি বেআইনি অর্থ পাচারের বিষয়ে। ২৯ আগস্ট থেকে ২ সেপ্টেম্বর পাকিস্তান সফর করে এফএটিএফ-এর ১৫ সদস্যের একটি দল। ব্রিটেন, আমেরিকা, জার্মানি, ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়া, ইইউ, এশিয়া প্যাসিফিক গ্রুপ (এপিজি) এবং অন্যান্যদের প্রতিনিধিরা পূর্ণাঙ্গ অধিবেশন চলাকালীন রিপোর্ট জমা দেন এবং আলোচনা করেন।

[আরও পড়ুন: ৮০০ কোটি ছুঁয়ে ফেলল বিশ্বের জনসংখ্যা, আগামী বছরই চিনকে টপকে যাবে ভারত]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে