২১ ফাল্গুন  ১৪২৭  রবিবার ৭ মার্চ ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নয়াদিল্লির উপর চাপ বাড়িয়ে এবার কৃষক আন্দোলনকে ‘সমর্থন’ রাষ্ট্রসংঘের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: February 6, 2021 8:47 am|    Updated: February 6, 2021 8:55 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রায় দু’মাসেরও বেশি সময় ধরে অবরুদ্ধ ‘দিল্লি দুর্গ’। কেন্দ্রের কৃষি আইনের বিরুদ্ধে চাষীদের আন্দোলনে রীতিমতো উদ্বেগে মোদি সরকার। এবার সেই চাপ আর বাড়িয়ে আন্দোলনকারীদের পাশে দাঁড়াল রাষ্ট্রসংঘ (UN)।

[আরও পড়ুন: নেতাজির ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন সু কি’র বাবা! মায়ানমারের ইতিহাসের সঙ্গে আশ্চর্য যোগ সুভাষের]

শুক্রবার ‘ইউনাইটেড নেশনস হাই কমিশনার ফর হিউম্যান রাইটস’ (OHCHR) সরকার ও আন্দোলনরত কৃষকদের সংযত হওয়ার আবেদন জানিয়েছে। এমনিতে ঘরে কেন্দ্রের উপর বিরোধীরা লাগাতার চাপ বাড়াচ্ছে। লালকেল্লায় হিংসার পর কিছুটা দমলেও, ফের জোট বেঁধে দিল্লি সীমান্তে জোরাল প্রতিবাদ শুরু করেছেন চাষীরা। এহেন পরিস্থিতিতে মোদি সরকারের উপর চাপ বাড়িয়ে এক বিবৃতি জারি করে রাষ্ট্রসংঘ বলেছে, “কৃষি আইন বিরোধী আন্দোলনে প্রশাসন ও প্রতিবাদীদের সংযত হতে হবে। অফলাইন বা অনলাইন, যেকোনও জায়গায় শান্তিপূর্ণ জমায়েত ও প্রতিবাদের অধিকার সুরক্ষিত থাকা উচিত। সবার মানবাধিকারকে সম্মন জানিয়ে এই সমস্যার সমাধান বের করা অত্যন্ত জরুরি।”

উল্লেখ্য, পর্নস্টার মিয়া খালিয়া থেকে শুরু করে পপস্টার রিহানা ও পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ পর্যন্ত কৃষকদের সমর্থন জানিয়েছেন। তবে সম্প্রতি এই বিষয়ে আমেরিকাকে পাশে পেয়েছে ভারত। নয়া কৃষি আইনের বিরোধিতায় শুরু হওয়া আন্দোলনকে ‘শান্তিপূর্ণ’ বলেও উল্লেখ করে ওয়াশিংটনের তরফে একে উন্নত গণতন্ত্রেরই পরিচয় বলে জানানো হয়েছে। মার্কিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে ভারতের কৃষি আন্দোলন নিয়ে এক প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে জানানো হয়, আমেরিকা বরাবরই দু’পক্ষের মধ্যে কোনও মতানৈক্য হলে আলোচনার মাধ্যমে তা মিটিয়ে নেওয়ার পক্ষে। এদিনই বিডেন প্রশাসন পরিষ্কার করে দিয়েছে, কেন্দ্র কৃষি আইন নিয়ে যে নয়া পদক্ষেপ করেছে, তার থেকে উপকৃত হবে দেশীয় বাজার। এছাড়া এ থেকে বিদেশি বিনিয়োগের পথও তৈরি হবে।

[আরও পড়ুন: পাকিস্তানে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ইরানের, খতম অন্তত ৫০ সন্ত্রাসবাদী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement