১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মৃত্যু হয়েছে ‘জেহাদের যুবরাজ’ হামজা বিন লাদেনের। জল্পনা উড়িয়ে অবশেষে সাফ জানাল আমেরিকা। নিহত আল কায়দা প্রধান ওসামা বিন লাদেনের সবচেয়ে প্রিয় সন্তানের মৃত্যুর খবর সর্ববসমক্ষে প্রকাশ করলেন মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব মার্ক এসপার।

[আরও পড়ুন: আফগানিস্তানে যুদ্ধ করুক ভারত, জল্পনা উসকে দাবি ট্রাম্পের]

এক মার্কিন সংবাদমধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হামজার মৃত্যুর কথা স্বীকার করেন মার্ক এসপার। হামজার মৃত্যুতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কী কোনও ভূমিকা ছিল? এই প্রশ্ন করা হলে, বিষয়টি তিনি এক অর্থে এড়িয়ে যান। ধোঁয়াশা বজায় রেখে তিনি বলেন, ‘এই বিষয়ে আমার কাছে বিশদ কিছু নেই। কিন্তু, যদি থাকতও, তার কতটা আপনাদের সামনে প্রকাশ করতাম, সে বিষয়ে আমি নিশ্চিত নই।’ সম্প্রতি, সম্প্রতি নিউ ইয়র্ক টাইমস দাবি করে, লাদেনপুত্র হামজা নিহত হয়েছেন। এছাড়াও, বিবিসি, ‘এনবিসি নিউজ’ থেকে শুরু করে ‘দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস’-সহ একাধিক প্রথমসারির সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, বিমান হানায় নিহত হয়েছে আল কায়দার তরুণ তুর্কি হামজা বিন লাদেন।

সন্ত্রাসবাদ নিয়ে কাজ করা বিশ্লেষকদের অধিকাংশই মনে করছেন, মার্কিন ড্রোন হানায় মৃত্যু হয়েছে হামজার৷ বরাবরই হামজাকে আফগানিস্তান থেকে দুরে রেখেছিল ওসামা৷ হামজার জন্ম হয় সৌদি আরবে৷ সেখানেই বেশ কয়েকবছর কাটানোর পর আফগানিস্তানে আসে সে৷  অ্যাবোটাবাদে অপারেশন নেপচুনস স্পিয়ারে ওসামা নিকেশের আগেই ইরান চলে যায় হামজা৷ সেখানেই তাকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়৷ মূলত, সুন্নি জঙ্গি সংগঠন আল কায়দাকে বাগে রাখতে ও শিয়া সংখ্যাগুরু ইরানে হামলা ঠেকাতে হামজাকে ঢালের মতোই ব্যবহার করে তেহরান৷ তবে কোনওভাবে আফগানিস্তানে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয় লাদেনের ২৩ সন্তানের মধ্যে সবচেয়ে নজরকাড়া হামজা বিন লাদেন৷ পাক-আফগান সীমান্ত থেকেই আমেরিকার বিরুদ্ধে যুদ্ধের হুঙ্কার দেয় আল কায়দার পোস্টার বয়৷            

ওসামা বিন লাদেনের ২৩টি সন্তানের মধ্যে ১৫তম সন্তান ছিল হামজা। লাদেনের তৃতীয় স্ত্রী’র ছেলে ছিল সে। পাকিস্তানের অ্যাবোটাবাদের গোপন ডেরায় লাদেনকে খতম করার পর বেশ কিছু তথ্য, ভিডিও ফুটেজ ও বহু ছবি বাজেয়াপ্ত করেছিল মার্কিন সেনা। সেগুলি খতিয়ে দেখে মার্কিন তদন্তকারীদের মত ছিল, লাদেনের অত্যন্ত প্রিয় সন্তান ছিল হামজা। আল কায়দার পরবর্তী নেতা হিসেবেও হামজাকে তুলে ধরার বেশ কিছু প্রমাণ মিলেছিল লাদেনের ডায়েরি থেকে। বাবার ইচ্ছে মতোই ধীরে ধীরে আল কায়দার রাশ নিজের হাতে নিতেও শুরু করেছিল হামজা।

[আরও পড়ুন: পৃথিবীর অক্সিজেন ভাণ্ডার এখন বিষাক্ত গ্যাসের খনি, জ্বলছে আমাজনের অরণ্য]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং