BREAKING NEWS

৮ শ্রাবণ  ১৪২৮  রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘লাল সন্ত্রাসে’ গণতন্ত্রের মৃত্যু! Apple Daily নিয়ে চিনকে তীব্র ভর্ৎসনা বাইডেনের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: June 25, 2021 9:52 am|    Updated: June 25, 2021 9:52 am

US President Joe Biden slams China on Apple Daily issue | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিরতরে বনধ হয়ে গেল হংকংয়ের শেষ স্বাধীন সংবাদপত্র ‘Apple Daily’। বৃহস্পতিবার প্রকাশিত হয় কাগজটির শেষ মুদ্রিত সংস্করণ। চিনের কমিউনিস্ট শাসকদের প্রবল সমালোচক ও গণতন্ত্রের ধ্বজাধারী হিসেবে পরিচিত দৈনিকটির উপর দীর্ঘদিন ধরেই চাপ সৃষ্টি করছিল প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের প্রশাসন। আর তা নিয়েই বেজিংয়ের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

[আরও পড়ুন: চিনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের শাস্তি! বন্ধ হল হংকংয়ের গনতন্ত্রপন্থী সংবাদপত্র]

হংকংয়ে সংবাদমাধ্যমগুলির সংগঠন ‘Hong Kong Free Press’ তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার স্মারক সংস্করণ হিসেবে ‘অ্যাপল ডেইলি’র ১০ লক্ষ কপি ছাপা হয়। শহরের সমস্ত পেপার স্ট্যান্ডগুলিতে লাইন দিয়ে অন্তিমবারের জন্য কাগজটি কেনেন গুণগ্রাহীরা। শেষবারের মতো আবেগঘন মন নিয়ে বিদ্রোহী কাগজটির বার্তা পড়েন তাঁরা। এদিকে, এই বিষয়ে চিনকে তীব্র ভর্ৎসনা করেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেন, “স্বাধীন সংবাদমাধ্যমে জন্য হংকং ও গোটা বিশ্বে এটা খুবই শোকের দিন। মুক্তবাণীর উপর চিনা দমনীতির জন্যই আজ হংকংয়ে গণতন্ত্রের অন্যতম স্তম্ভ অ্যাপল ডেইলি বন্ধ হয়ে গেল। সাংবাদিকতা অপরাধ নয়। হংকংয়ের মানুষের অধিকার কেড়ে নিয়ে গণতান্ত্রিক সংস্থাগুলির অপমান করছে চিন। এহেন পরিস্থিতিতে হংকংয়ের জনতার পাশে থাকবে আমেরিকার জনগণ।”

উল্লেখ্য, হংকংয়ে (Hong Kong) গণতন্ত্রের কণ্ঠরোধ করতে মরিয়া চিন। কয়েকদিন আগেই ‘বিদ্রোহী’ সংবাদপত্র ‘Apple Daily’র মুখ্য সম্পাদক-সহ পাঁচ সংবাদকর্মীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। একইসঙ্গে সংস্থাটির সমস্ত সম্পত্তি বাজেযাপ্ত করা হয়। তাই বাধ্য হয়েই কাজে দাঁড়ি টানতে হয়েছে দৈনিকটিকে। পুলিশের অভিযোগ, বিদেশি শক্তির সঙ্গে হাত মিলিয়ে জাতীয় নিরাপত্তাকে বিপন্ন করছে সংবাদপত্রটি। অ্যাপল ডেইলি’র মালিকানা রয়েছে হংকংয়ের গণতন্ত্রকামী নেতা তথা ধনকুবের জিমি লাইয়ের হাতে। বরাবর বেজিংয়ের অত্যাচার এবং নিপীড়নের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে সংবাদপত্রটি। স্বশাসিত প্রদেশটিতে বিগত কয়েক মাস ধরেই জিমি লাইকে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে বন্দি করে রেখেছে শি জিনপিংয়ের প্রশাসন।

[আরও পড়ুন: চিনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের শাস্তি! বন্ধ হল হংকংয়ের গনতন্ত্রপন্থী সংবাদপত্র]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement