৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৪ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

হোয়াইট হাউসে ফিরছেন না ট্রাম্প! প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত বিডেনকে অভিনন্দন চিনের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: November 13, 2020 4:10 pm|    Updated: November 13, 2020 4:10 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বেশ কয়েকদিন জল মাপার পর শেষমেশ শুক্রবার আমেরিকায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত জো বিডেনকে (Joe Biden) অভিনন্দন জানাল চিন। নির্বাচনের প্রায় এক সপ্তাহেরও বেশি সময় পর বেজিংয়ের অভিনন্দন বার্তা স্পষ্ট ইঙ্গিত যে হোয়াইট হাউসে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে দ্বিতীয়বারের জন্য ফিরবেন না, তা মেনে নিয়েছেন চিনা বিশ্লেষকরা।

[আরও পড়ুন: নির্ধারিত সময়ের আগেই ভারতকে এস-৪০০ মিসাইল সিস্টেম দিতে সচেষ্ট রাশিয়া]

এক সংবাদ সম্মেলনে এদিন চিনা বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন বলেন, “মার্কিন জনতার রায়কে আমরা সম্মান জানাচ্ছি। বিডেন ও হ্যারিসকে অভিনন্দ। আমরা জানি যে আমেরিকার প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচনের ফলাফল সে দেশের নিয়মকানুন মেনেই ঘোষিত হবে।” বিশ্লেষকদের মতে, এদিন অ্যারিজোনায় জয় সাব্যস্ত করেছেন বিডেন। ফলে আর কোনওমতেই মসনদে ফেরা সম্ভব নয় ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে। এই বিষয়টি ভাল করে বিবেচনা করেই বিডেন প্রশাসনের সঙ্গে কাজ করা বা বলা ভাল, মোকাবিলা করার জন্য নির্দিষ্ট নীতি তৈরি করছে চিন। তাই আর কোনও রাখঢাক না করে বিডেনকেই আমেরিকার রাষ্ট্রপতি বলে মেনে নিয়েছে বেজিং।

এদিকে, চিন বিডেনকে অভিনন্দন জানালেও, এখনও পর্যন্ত জল মপছে রাশিয়া, মেক্সিকো ও ব্রাজিলের মতো দেশগুলি। কারণ, প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচনে স্পষ্ট জনমত পেয়েছেন জো বিডেন (Joe Biden)। কিন্তু তারপরও হাল ছাড়তে নারাজ বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জনতার রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে রিপাবলিকান শিবির। তাই পরিস্থিতির উপর নজর রেখে এখনই বিডেনের জয়কে স্বীকৃতি দিতে নারাজ এই দেশগুলি। উল্লেখ্য, নভেম্বরের ৩ তারিখ আমেরিকায় ভোটগ্রহণ শেষ হলেও স্পষ্ট রায় আসতে পেরিয়ে যায় প্রায় চারদিন। নাটকীয় নির্বাচনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শেষে ২৭০-এর ম্যাজিক ফিগার পার করে ফেলেন জো বিডেন। ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জয়ী হওয়ার সঙ্গেই আমেরিকায় বয়ে যায় উচ্ছাসের বন্যা। পালটা রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ দেখান ট্রাম্পপন্থীরা। কিন্তু, এখনও পরাজয় মানতে নারাজ ট্রাম্প। নিতে পারেন আইনি পদক্ষেপ। বিগত চার বছরে শুল্ক লড়াই থেকে শুরু করে করোনা-সহ বিভিন্ন ইস্যুতে চিনের সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছে। চিনকে লাগাতার তুলোধোনা করে এসেছেন ট্রাম্প। এহেন পরিস্থিতিতে হোয়াইট হাউস দখল করেছেন বিডেন।

[আরও পড়ুন: লাদাখ সীমান্তে শান্তি ফেরাতে নবনির্মিত সামরিক পরিকাঠামো সরাতে রাজি ভারত-চিন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement