১০ মাঘ  ১৪২৭  রবিবার ২৪ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আরও বিপাকে মালিয়া, ফ্রান্সে ঋণখেলাপি লিকার ব্যারনের কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: December 4, 2020 10:36 pm|    Updated: December 4, 2020 10:36 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ আরও বিপাকে বিজয় মালিয়া (Vijay Mallya)। ঋণখেলাপি লিকার ব্যারনের ফ্রান্সে থাকা ১৬ লক্ষ ইউরো বা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ১৪ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (Enforcement Directorate) বা ইডি (‌ED)‌। ইডির পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি দিয়ে এই খবর জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘‌‘ইডির অনুরোধের পর ফ্রান্সের ৩২ এভিনিউ, FOCH-এ বিজয় মালিয়ার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে ফরাসি প্রশাসন। বাজেয়াপ্ত করা সম্পত্তির পরিমাণ ১৬ লক্ষ ইউরো অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ১৪ কোটি টাকা। তদন্তে দেখা গিয়েছে, একটা বড় পরিমাণ অর্থ কিংফিশার বিমান সংস্থার অ্যাকাউন্ট থেকে বিদেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল’। এরপর টুইট করেও ED-র তরফে ‌একথা জানানো হয়।

 

[আরও পড়ুন: ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত! জোর করে শুক্রবারে উইঘুর মুসলিমদের শুয়োর খাওয়াচ্ছে চিন]

অনেকদিন ধরেই বিচারের জন্য ঋণখেলাপি বিজয় মালিয়াকে দেশে ফেরানোর চেষ্টা করে চলেছে ভারত। তার জন্য চলছে আইনি লড়াই। ৯ হাজার কোটি টাকার ঋণখেলাপির মামলায় ২০১৬ সালের মার্চ মাসে দেশ থেকে পালিয়ে যান মালিয়া। তারপর থেকে ব্রিটেনেই রয়েছেন। ব্রিটিশ আদালত মে মাসে মাল্যকে দেশে ফেরার নির্দেশ দিলেও ব্রিটেনের কিছু আইনি জটিলতার জন্য তাঁকে এখনও দেশে ফেরাতে পারেনি ভারত। গত মাসেই সুপ্রিম কোর্টকে সে কথা জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এর মধ্যে সম্প্রতি শীর্ষ আদালতের ২০১৭ সালের একটি রায় পুনর্বিবেচনার আরজি জানিয়েছিলেন তিনি। সেটিও খারিজ করে দিয়েছিল শীর্ষ আদালত।

[আরও পড়ুন: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর চিনই গণতন্ত্রের সবচেয়ে বড় বিপদ, দাবি মার্কিন গুপ্তচর প্রধানের]

১৭টি ব্যাংকের কনসর্টিয়াম ২০১৭ সালে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল। তাঁদের অভিযোগ ছিল, আদালতের নির্দেশ না মেনে লন্ডনের দিয়াগো সংস্থা থেকে প্রাপ্ত ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, ভারতীয় অর্থে প্রায় ২৯৯ কোটি টাকা ছেলেমেয়েদের অ্যাকাউন্টে পাঠিয়েছেন লিকার ব্যরন। এই লেনদেন সম্পর্কে আদালতকে কিছুই জানাননি ব্যবসায়ী। এরপরই সেই মামলায় রায়দান করে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছিল মালিয়া আদালত অবমাননা (Contempt of Court) করেছেন। ২০১৭ সালের ৯ মে আদালতের দেওয়া এই রায় পুনর্বিবেচনার আরজি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন মালিয়া। দুপক্ষের বক্তব্য শোনার পর এদিন বিচারপতি ইউ ইউ ললিত ও প্রশান্ত ভূষণ বলেন, “এই আরজি ভিত্তিহীন।” এরপরই মালিয়ার আরজি খারিজ করে দেন বিচারপতি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement