৭ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

মার্কিন মুলুকে ফের বন্দুকবাজের হামলা, গুলি চলল ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 15, 2017 4:46 am|    Updated: October 15, 2017 4:47 am

Virginia State University on lockdown after shooting, 1 injured

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লাস ভেগাসের পর এবার ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়। ফের বন্দুবাজের হামলায় আতঙ্ক মার্কিন মুলুকে। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত একজনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। তাঁর শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। নিরাপত্তার কারণে ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় তালাবন্ধ করে রেখেছে পুলিশ। টুইট করে স্থানীয় বাসিন্দাদের ওই এলাকাটি এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যাল কর্তৃপক্ষ।

[লাস ভেগাসে ক্যাসিনোয় বন্দুকবাজের হামলা, মৃত্যুমিছিল]

শনিবার বাড়ি ফেরার প্রস্তুতিতে ব্যস্ত ছিলেন ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়ারা। রাতে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে একটি কনসার্টের আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু, আচমকাই ছন্দপতন! বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে চলল গুলি! মার্কিন পুলিশ জানিয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে এক ব্যক্তিকে লক্ষ্য করে গুলি চলে। তড়িঘড়ি গুলিবিদ্ধ ব্যক্তিকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তাঁর শারীরিক অবস্থায় আশঙ্কাজনক। ঘটনায় ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এই ঘটনার পর নিজেদের মধ্যে মারামারিতেও জড়িয়ে পড়েন পড়ুয়ারা।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। নিরাপত্তার কারণে দ্রুত এলাকা খালি করে বিশ্ববিদ্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলা চালিয়েছে এক কৃষ্ণাঙ্গ যুবক। তার পরনে ছিল সাদা রঙের একটি জার্সি। জার্সিতে নীল রঙ দিয়ে ২৩ নম্বর লেখা ছিল। ঘটনার সম্পর্কে কোনও তথ্য জানা থাকলে, স্থানীয় থানায় যোগাযোগ করার জন্য সাধারণ মানুষকে অনুরোধ জানিয়ে্ছে পুলিশ। এদিকে ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে টুইট করে জানানো হয়েছে, গুলি চালনার ঘটনা ঘিরে ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় ও লাগোয়া এলাকা এখনও যথেষ্ট উত্তেজনা রয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের ওই এলাকাটি এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

 

প্রসঙ্গত, গত ২ অক্টোবর মার্কিন মুলুকের ইতিহাসে ভয়াবহ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে লাস লাস ভেগাসে। শহরের একটি ক্যাসিনোতে কনসার্ট চলাকালীন এলোপাথারি গুলি চালায় স্টিফেন  প্যাডক নামে এক ব্যক্তি। প্রাণ হারান ৫৯ জন। আহত পঞ্চাশের বেশি। তবে জঙ্গি সংগঠন আইএস ঘটনা দায় স্বীকার করলেও, সেই তত্ত্ব নাকচ করে দেয় লাস ভেগাস পুলিশ।

[হিংসার বলি বাবা-মা, অথৈ জলে ১১ হাজার রোহিঙ্গা শিশু]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে