Advertisement
Advertisement
Asia Cup 2023 IND vs SL Mohammed Siraj

Mohammed Siraj: কীভাবে মহানুভবতার পরিচয় দিলেন এক ওভারে চার উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা হওয়া সিরাজ?

আগুনে বোলিং করলেও মহানুভব সিরাজ।

Asia Cup Final 2023, IND vs SL: Man of the match Mohammed Siraj will give prize money to Premadasa stadium groundsmen। Sangbad Pratidin

উইকেট নিয়ে এভাবেই ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর মতো সেলিব্রেশন করেছিলেন মহম্মদ সিরাজ। ছবি: টুইটার

Published by: Sabyasachi Bagchi
  • Posted:September 17, 2023 8:01 pm
  • Updated:September 17, 2023 10:15 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এমন আগুনে বোলিং করার পর ম্যাচের সেরা পুরষ্কার পাওয়াই স্বাভাবিক ছিল। এক ওভারে চার উইকেট। এশিয়া কাপের ফাইনালে (Asia Cup Final 2023) শ্রীলঙ্কাকে (Sri Lanka) ময়দানের দ্বিতীয় ডিভিশনে পরিণত করা মহম্মদ সিরাজের (Mohammed Siraj) বোলিং ফিগার ৭-১-২১-৬। তাই চ্যাম্পিয়ন হতেই ম্যাচের সেরার পুরষ্কার নিতে চলে এলেন টিম ইন্ডিয়ার (Team India) তরুণ পেসার। বিরিয়ানি পছন্দ করা সিরাজ দিলেন মহানুভবতার পরিচয়। স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন ম্যাচের সেরা হওয়ার পুরো টাকা তিনি নিজের কাছে নয়, বরং কলম্বোর (Colombo) প্রেমদাসা স্টেডিয়ামের (Premadasa Stadium) মাঠকর্মীদের হাতে তুলে দেবেন।

মাঠের একটা দিকে তখন পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সিরাজ-সহ বাকিদের সাক্ষাৎকার নেওয়ার জন্য সেই সময় উপস্থিত ছিলেন ভারতের প্রাক্তন কোচ রবি শাস্ত্রী (Ravi Shastri)। সিরাজ তাঁর কাছে আসতেই শাস্ত্রী হায়দরাবাদি স্টাইলে প্রশ্ন করলেন, ‘মিয়া কোন ধরনের বিরিয়ানি খেয়ে ফাইনালে নেমেছিলে?’ একগাল হেসে সিরাজের জবাব, ‘স্যর এখানে খুব ভালো বিরিয়ানি পাওয়া যায় না। তবে এবার টিম হোটেলে ফিরে ভালো মাটন বিরিয়ানি খোঁজার চেষ্টা করব।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: ছয় উইকেট নেওয়া সিরাজের কাণ্ডকারখানা দেখে হেসে লুটোপুটি বিরাট! দেখুন ভাইরাল ভিডিও]

 

Advertisement

শুরুটা করেছিলেন জশপ্রীত বুমরাহ। শেষটা করলেন হার্দিক পাণ্ডিয়া। তবে শ্রীলঙ্কা ব্যাটিংকে একাই উড়িয়ে দিলেন সিরাজ। ফলে মাত্র ৫০ রানে অল আউট হয়ে গিয়েছিল গত বারের চ্যাম্পিয়নেরা। নিজের দ্বিতীয় ওভারেই চার উইকেট নিয়ে ফেলেছিলেন সিরাজ। বোলিংয়ে একটি বদল করেই এই ম্যাচ এতটা সফল হয়েছেন সিরাজ। সে কথা জানালেন সিরাজ নিজেই।

বলছিলেন, “পাঁচ উইকেট নেওয়া যে কোনও বোলারের স্বপ্ন থাকে। আমি তো ছয় উইকেট নিলাম। এক ওভারে পাঁচ উইকেট নিতে পারলে আরও ভালো লাগত। তবে এদিন পিচ আমাদের মতো পেস বোলারদের জন্য অনেকটাই সুবিধা করে দেয়। সঠিক জায়গায় বল রাখতে পেরেছিলাম বলেই সাফল্য পেলাম।”

[আরও পড়ুন: সিরাজের পর ‘দুই বেস্ট ফ্রেন্ড’ ঈশান-শুভমানের দাপট, সর্বাধিক আটবার এশিয়ার সেরা টিম ইন্ডিয়া]

আর এরপরেই তিনি বড় কথা বলে দিলেন। ম্যাচের সেরার পুরষ্কার হাতে নিয়ে সিরাজ বলে দেন, “এই টাকা আমি প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামের গ্রাউন্ডসম্যানদের হাতে তুলে দিলাম। পুরো প্রতিযোগিতা জুড়েই বৃষ্টি বাদ সেধেছিল। এমন পরিস্থিতিতে ওরা পরিশ্রম না করলে কোনও ভাবেই এশিয়া কাপ আয়োজন করা সম্ভব ছিল না। তাই এই মানুষগুলোকে সাহায্য করা খুবই জরুরি।”

কীভাবে সাফল্য পেলেন? সেটাও জানালেন সিরাজ। তিনি যোগ করেন, “আমি সাধারণত ক্রস সিমে বল করি। কিন্তু এই ম্যাচে সিম ধরে বল করছিলাম। তাই ইনসুইংয়ের থেকে আউটসুইং বেশি হচ্ছিল। সেটাই কাজে লাগিয়েছি। বেশির ভাগ ব্যাটার আউটসুইংয়ে আউট হয়েছে। এই ম্যাচে আমার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে।”

ব্যাটারদের পায়ের কাছে বল করেছেন সিরাজ। খেলতে বাধ্য করেছেন। যে লেংথে সিরাজ বলে করেছেন সেই লেংথ থেকে ব্যাটারদের শট খেলতে সুবিধা হয়। কিন্তু সেই লেংথে বল করেই সাফল্য পেয়ে ইতিহাস গড়লেন ‘মিয়া ম্যাজিক’। এবং মহানুভবতার পরিচয় দিলেন।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ