২৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: এক কিশোরীকে পরপর সাত বার ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল এক ভণ্ড পীরের বিরুদ্ধে। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে বন্দর নগর চট্টগ্রাম বায়েজিদ বোস্তামি থানার আরেফিননগর এলাকায়। রবিবার সন্ধ্যায় আরেফিননগর এলাকায় মুক্তিযোদ্ধা কলোনির ‘নেজামে খানকা’ থেকে ভুয়ো ওই পীরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ধর্ষণের অভিযোগে ধৃত ওই ভণ্ড পীরের নাম মোহাম্মদ নেজামউদ্দিন ওরফে নেজাম মামা। বয়স ৪২ বছর। বায়েজিদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান খন্দকার বলেন, ওই কিশোরীর বয়স ১৬ বছর। তাকে ধর্ষণের অভিযোগে নেজামউদ্দিনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। নেজামউদ্দিন আরেফিননগর এলাকায় ডেরা খুলে মানুষকে ঝাঁড়ফুক করত। সমস্যা থেকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য তাবিজ দিত। তার কাছে বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন আসতেন।

[ আরও পড়ুন: চিকিৎসা করাতে এসে বাড়ি ফেরা হল না, সমাধিস্থ জাগুয়ারের ধাক্কায় মৃত ঢাকার ২ বন্ধু ]

১০ দিন আগে নেজামউদ্দিনের কাছে মহেশখালী থেকে এক মহিলা আসেন। ওই পীর মহিলাকে জানান, ওই মহিলা কোনও কারণে ভয় পাচ্ছেন। এর সমাধান স্বরূপ সেদিন রাতে ওই মহিলার সঙ্গে ঘুমানোর জন্য তাঁকে ও কিশোরীকে নেজাম উদ্দিন তার ডেরায় ডেকে নেয়। পরে রাতে অন্য একটি ঘরে নিয়ে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, ভয় দেখিয়ে ওই কিশোরীকে পরপর সাতবার ধর্ষণ করে নেজাম উদ্দিন। কাউকে জানালে ওই কিশোরীর ক্ষতি হবে বলেও ভয় দেখানো হয়। কিন্তু ওই কিশোরী নেজাম উদ্দিনের কথা মানেনি। গোটা ঘটনার কথা সে তার মাকে জানায়। তারপর মা ও মেয়ে মিলে থানায় অভিযোগ করে। ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য সোমবার চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট হাতে পেলে তারপরই পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে।

[ আরও পড়ুন: মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় হোক নতুন জাতীয় সংগীত, প্রতিবাদী ব্যানার ঘিরে ফের বিতর্ক বাংলাদেশে ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং