২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সুকুমার সরকার, ঢাকা: ফের বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত নিয়ে বিতর্ক উসকে উঠল৷ পাশাপাশি মুজিবগঞ্জ জেলার নাম পরিবর্তনের দাবিও উঠেছে৷ এই সংক্রান্ত একটি ব্যানার ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ সেই ব্যানারেই দুটি দাবির কথা বলা হয়েছে৷ যা নিয়ে আপাতত সরগরম নেটদুনিয়া৷

[আরও পড়ুন: তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ, হাজতেই ফুলশয্যার রাত কাটাল বর]

মুজিবগঞ্জের জাতীয় সংগীত পরিবর্তন পরিষদের তরফে তৈরি হয়েছে বিতর্কিত ব্যানারটি৷ যাতে মূলত দুটি দাবি উল্লেখ করা হয়েছে৷ প্রথমত, গোপালগঞ্জের পরিবর্তে মুজিবগঞ্জকে জেলার স্বীকৃতি দিতে হবে৷ দ্বিতীয়ত, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নতুন জাতীয় সংগীত চাই৷ ব্যানারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান, স্ত্রী ফজিলাতুন্নেতা মুজিব এবং তাঁদের কন্যা তথা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি রয়েছে৷ এমনকী ছবির নিচে রয়েছে বঙ্গবন্ধুর সেই বিখ্যাত উক্তি – ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম৷’ রয়েছে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবি অন্নদাশংকর রায়ের লেখা জনপ্রিয় কবিতা – ‘যতদিন রবে পদ্মা যমুনা গৌরী মেঘনা বহমান/ ততদিন রবে কীর্তি তোমার, শেখ মুজিবুর রহমান৷’  পোস্টারের নিচে একটি জি-মেলের ঠিকানাও দেওয়া আছে৷ ব্যানারটিতে পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা এবং সভাপতি হিসেবে এসএম কায়কোবাদ নামে এক ব্যক্তির ছবি দেওয়া আছে৷

এই পোস্টারটি রাতারাতি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে৷ জাতীয় সংগীত পরিবর্তন পরিষদের এই দাবিকে সমর্থন করেছেন কেউ কেউ৷ যদিও পরিষদের তরফে নতুন গান হিসেবে কোনও প্রস্তাব দেওয়া হয়নি৷ সেক্ষেত্রেও সোশ্যাল মিডিয়ার আলোচনায় উঠছে বেশ কয়েকটি গান৷ কেউ বলছেন, ‘যদি রাত পোহালে শোনা যেত বঙ্গবন্ধু মরে নাই’ গানটি জাতীয় সংগীতের মর্যাদা দাবি করে৷ আবার বিরোধিতাও আছে৷ কারও কারও মন্তব্য, ‘এগুলো দেখে মনে হয়, এখন বাংলাদেশ আওয়ামি লিগ সাংগঠনিকভাবে ধ্বংস হওয়ার সুবর্ণ সময় চলছে৷ কাক,কোকিল আর মেরুদণ্ডহীন প্রাণীদের জয়জয়কার৷’ আরেকজনের প্রতিক্রিয়া, এই ব্যানারের পরিপ্রেক্ষিতে সরকার কী পদক্ষেপ নেয়, সেটাই দেখার অপেক্ষায়৷

[আরও পড়ুন: স্নানের ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ধর্ষণ, অপমানে আত্মঘাতী তরুণী]

প্রসঙ্গত, যে জেলার নাম বদল নিয়ে জাতীয় সংগীত পরিবর্তন পরিষদের এই দাবি, সেই গোপালগঞ্জ মুজিবুর রহমান, শেখ হাসিনার জন্মস্থল৷ শোনা যায়, দেশভাগের সময়ে এই গোপালগঞ্জেই গিয়ে বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়৷ সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দাদের লাঠিখেলায় মুগ্ধ শ্যামাপ্রসাদ পরে ইচ্ছেপ্রকাশ করেন, গোপালগঞ্জে এমন যোদ্ধাদের বাস, তা জানলে এই ভূখণ্ডকে ভারতের অন্তর্ভুক্ত করতেন৷ আর সেই গোপালগঞ্জ, মুজিবগঞ্জ নিয়েই আচমকা বিতর্ক৷ এর আগে যদিও বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন জনপ্রিয় গায়ক মাইনুল আহসান নোবেল৷ জাতীয় সংগীত পরিবর্তন পরিষদের ব্যানার ফের সেই বিতর্ক উসকে দিল৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং