২৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

মণিশংকর চৌধুরি: ভারতের সীমান্তবর্তী রাজ্য, বিশেষত উত্তরপূর্বের রাজ্যগুলিতে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করতে বদ্ধপরিকর কেন্দ্র। ইতিমধ্যেই অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জির তালিকা নবায়িত হয়েছে। বাদ পড়েছেন বহু নাগরিক, যাদের মধ্যে অনেকেই বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত। অন্যান্য রাজ্যগুলিতেও তা লাগু হলে, আরও বেশি মানুষের বাদ পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। এই বিষয়টি ভারত-বাংলাদেশ পারস্পরিক সম্পর্কে কতটা প্রভাব ফেলতে পারে? সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটালকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনই একাধিক প্রশ্নের উত্তর দিলেন বাংলাদেশের ক্ষমতাসীন দল আওয়ামি লিগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মী আহমেদ।

প্রশ্ন: কার্যত বিরোধীহীন বাংলাদেশ, প্রধান বিরোধী দল বিএনপি ভগ্নপ্রায়, এককথায় ক্ষমতা কেন্দ্রীভূত আওয়ামি লিগের হাতে, বাংলাদেশ কি একনায়কতন্ত্রের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে?

উত্তর: বাংলাদেশ একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র, আমাদের সংবিধান অনুযায়ী দেশের জনগণ এই প্রজাতন্ত্রের মালিক। যেহেতু বাংলাদেশের নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ করে সেখানে একনায়কতন্ত্রের কোনও সুযোগ নেই।

প্রশ্ন: সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী হাসিনা কড়া পদক্ষেপ করছেন, তবে হেফাজত-ই-ইসলামের নেতাদের সঙ্গে নির্বাচনের আগে মঞ্চ ভাগ করেছেন তিনি। তবে কি বিএনপি-জামাত জোটের মতো, পরোক্ষে হেফাজতের সঙ্গে বোঝাপড়া হয়েছে?

উত্তর: বাংলাদেশ একটি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ রাষ্ট্র। জামাতের মতো হেফাজত কোনও রাজনৈতিক বা সন্ত্রাসী সংগঠন নয়। হেফাজত সম্পূর্ণ একটি অরাজনৈতিক সংগঠন। শেখ হাসিনা সকল ধর্মের লোকজনের সঙ্গে মত বিনিময় করে থাকেন। আওয়ামি লিগ, পরোক্ষভাবে এ ধরনের সমঝোতায় বিশ্বাসী না। এক্ষেত্রে গোপন সমঝোতার প্রশ্নই ওঠে না।

ড.শাম্মী আহমেদ, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক বাংলাদেশ আওয়ামি লিগ।

প্রশ্ন: সুপ্রিম কোর্ট চত্বর থেকে গ্রিক ভাস্কর্য সরানোর দাবি মেনে নেওয়া কি উগ্র ইসলামি মতবাদকে প্রশ্রয় দেওয়া নয়?

উত্তর: একদমই নয়। অনেক মানুষের অনুভূতির প্রতি সম্মান রেখেই সুপ্রিম কোর্টের সামনে থেকে মূর্তি সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

প্রশ্ন: অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (NRC) নবায়িত হয়েছে। এক্ষেত্রে ঘোষিত বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের কি ফেরত নেওয়া হবে? ঢাকা-দিল্লির বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কে কতটা প্রভাব ফেলতে পারে NRC?

উত্তর: ভারতে অসম রাজ্যে যে এনআরসি হয়েছে, সেটা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। ভারতে বাংলাদেশের কোনও অনুপ্রবেশকারী নেই, তা আমি আগেও বলেছি। এতে দুই দেশের সম্পর্কে কোনও প্রভাব পড়বে না।

প্রশ্ন: দলের রাশ ধরার জন্য কি উত্তরসূরী নির্বাচনের কথা ভাবছেন হসিনা? এক্ষেত্রে পরবর্তী আওয়ামি প্রধান হিসেবে আমরা কাকে পেতে পারি?

উত্তর: বাংলাদেশ আওয়ামি লিগ একটি গণতান্ত্রিক দল। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবার অভিভাবক, তিনি আমৃত্যু আওয়ামি লিগের অভিভাবক।

[আরও পড়ুন: হোলি আর্টিজান হামলায় রায় ঘোষণার দিন ধার্য, নিরাপত্তা বাড়ল ঢাকায়]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং