BREAKING NEWS

৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বুধবার ২৫ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

স্ত্রীর হাতে নিপীড়িত, বাংলাদেশে জোরাল পুরুষ নির্যাতন বিরোধী আইনের দাবি

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: November 11, 2020 10:19 am|    Updated: November 11, 2020 10:46 am

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: নারী নির্যাতন নিয়ে নানা আইন থাকলেও এক্ষেত্রে বঞ্চিত পুরুষরা। কোনও আইনি রক্ষাকবচ না থাকায় নির্যাতনের শিকার হয়েও অনেক সময়ই সুবিচার মেলে না ভুক্তভোগীদের। তাই এবার বাংলাদেশে (Bangladesh) জোরাল হয়েছে পুরুষ নির্যাতন বিরোধী আইনের দাবি।

[আরও পড়ুন: জনমতের পরোয়া নেই! হোয়াইট হাউস ছাড়বেন না ট্রাম্প, জল্পনা উসকে ইঙ্গিত পম্পেওর]

জানা গিয়েছে, পুরুষদের স্বার্থরক্ষায় নয়া আইনের দাবি তুলেছে ‘বাংলাদেশ মেনস রাইটস ফাউন্ডেশন’ নামের সরকার স্বীকৃত একটি সামাজিক সংগঠন। দেশে পুরুষ নির্যাতন বিরোধী আইন প্রণয়নের দাবি নিয়ে আগামী ১৯ নভেম্বর আন্তর্জাতিক পুরুষ দিবস উদযাপন করবে এই সংগঠনটি। নির্যাতিত পুরুষদের সহযোগিতার জন্য গঠিত প্রতিষ্ঠানটির তথ্য অনুযায়ী দেশে প্রতিদিন কমপক্ষে পাঁচজন করে বিবাহিত পুরুষ তাঁদের স্ত্রীর হাতে নির্যাতনের শিকার হন। সেই হিসেবে বর্তমানে দেশের বিবাহিত পুরুষদের প্রায় ৮০ শতাংশই কোনও না কোনও সময়ে নারীদের দ্বারা নির্যাতিত। এদের মধ্যে উচ্চবিত্ত, প্রশাসনিক আধিকারিক থেকে নিম্নবিত্তরাও রয়েছেন।

পরিবারে পুরুষ সদস্যের নিপীড়ন প্রসঙ্গে সংগঠনটির মহাসচিব প্রকৌশলী ফারুক সাজেদ এই বিষয়ে জানান, ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে টেলিফোনে ও ফেসবুক পেজে দেওয়া তথ্যে দেখা যাচ্ছে পারিবারিক অশান্তিকে কেন্দ্র করে বিবাহিত পুরুষদের ওপর শারীরিক, মানসিক ও আইনি প্রক্রিয়ায় ভোগান্তি বাড়ছে। সামাজিক কারণে পুরুষরা এসব বিষয়ে প্রকাশ্যে বলতে পারেন না। বিশ্লেষকদের মতে, পুরুষদের পক্ষে তেমন কোনও আইনি সুরক্ষাও নেই। ফলে বাড়িতে নির্যাতিত হলেও সেই কথা প্রকাশ করেন না পুরুষরা। এছাড়া, সমাজে মহিলাদের নির্যাতনের বিষয়টি যতটা সহানুভূতির সঙ্গে দেখা হয়, পুরুষদের ক্ষেত্রে তেমনটা হয়না।

[আরও পড়ুন: পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় যাচ্ছে বাংলাদেশ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement