×

৫ চৈত্র  ১৪২৫  বৃহস্পতিবার ২১ মার্চ ২০১৯   |   শুভ দোলযাত্রা।

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: অবশেষে বহুকাঙ্খিত পাটুরিয়া-গোয়ালন্দ রুটে দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মাণের পরিকল্পনা আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে। বর্তমানে ঢাকা-মাদারিপুরে নির্মাণাধীন পদ্মা সেতুর অভিজ্ঞাতা পর্যালোচনা করে পাটুরিয়া-গোয়ালন্দে দ্বিতীয় পদ্মা সেতু তৈরির উদ্যোগ নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। মঙ্গলবার জাতীয় সংসদের অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে আওয়ামি লিগের সংসদ সদস্য শাজাহান খানের এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে একথা জানানো হয়। পিডিপিপি পদ্ধতিতে এই সেতু নির্মাণ করা হবে বলে নীতিগতভাবে অনুমোদিত হয়েছে।

প্রাক্তন নৌ-পরিবহণমন্ত্রী শাজাহান খানের লিখিত প্রশ্নের জবাবে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গত বছরের ৩০ মে পিপিপি কর্তৃপক্ষের বোর্ড গভর্নরসের দ্বিতীয় সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে ‘দ্বিতীয় পদ্মা বহুমুখী সেতুর উদ্যোগে বর্তমানে নির্মাণাধীন সেতুর কার্যক্রম সমাপ্ত হলে, এর অভিজ্ঞতা পর্যালোচনার পর গ্রহণ করা যেতে পারে।’ এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মাণের কার্যক্রম শুরু করা সম্ভব হবে আশা করা যায়।

[বাংলাদেশ ও পাকিস্তানে জামাতকে নিষিদ্ধ করতে প্রস্তাব মার্কিন কংগ্রেসের]

এদিকে টঙ্গির বিমানবন্দর থেকে ঢাকার কমলাপুর রুটে দেশের প্রথম পাতাল রেল বা আন্ডারগ্রাউন্ড মেট্টোরেল নির্মিত হতে যাচ্ছে। এই রুটের মোট দৈর্ঘ্য ১৯.৮৭ কিলোমিটার। যার মধ্যে মূল পাতাল রেল ১৬.২১ কিলোমিটার এবং আন্ডারগ্রাউন্ড এলিভেটেড ট্রানজিশন সেকশন ৩.৬৫ কিলোমিটার। এই রুটে মোট স্টেশন (আন্ডারগ্রাউন্ড) থাকবে ১২টি, ৭টি স্টেশন হবে এলিভেটেড। এর মধ্যে নতুনবাজার ও যমুনা ফিউচার পার্ক স্টেশন বিমানবন্দর রুটের অংশ হিসেবে আন্ডারগ্রাউন্ড নির্মিত হবে। নতুন বাজার স্টেশনে ইন্টারচেঞ্জ থাকবে। এই ইন্টারচেঞ্জ ব্যবহার করে বিমানবন্দর রুট থেকে পূর্বাচল রুটে এবং পূর্বাচল রুট থেকে বিমানবন্দর রুটে যাতায়াত করা যাবে। স্পিকার ডঃ শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপিত হয়। ওবায়দুল কাদের গুরুতর অসুস্থ হয়ে বর্তমানে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন থাকলেও তাঁর উত্তর পূর্বনির্ধারিত ছিল।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং