৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি করতে আগ্রহী বাংলাদেশ

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: January 17, 2020 2:55 pm|    Updated: August 21, 2020 3:28 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি করতে আগ্রহী বাংলাদেশ। এমনটাই জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি।  যদিও এখনও পর্যন্ত ভারতের তরফে কোনও প্রস্তাব আসেনি বলেও জানান তিনি। 

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, “পেঁয়াজ রপ্তানির প্রস্তাব পেলে এবং দাম কম থাকলে আমরা অবশ্যই বিষয়টি বিবেচনা করব। তবে এখনও পর্যন্ত নয়াদিল্লির তরফে আমরা কোনও প্রস্তাব পাইনি।” সূত্রের খবর, গত সোমবার ভারতের কেন্দ্রীয় বাণিজ্য মন্ত্রক বাংলাদেশের হাইকমিশনের রকিবুল হকের সঙ্গে বৈঠক করেছে এবং ওই বৈঠক সূত্রে জানা গিয়েছে, ভারত বাড়তি পেঁয়াজ বাংলাদেশে রপ্তানির ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। আরও বলা হয়, বিভিন্ন রাজ্য সরকারের চাহিদার ভিত্তিতে সম্প্রতি বিপুল পরিমাণ পেঁয়াজ আমদানি করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। সেই পেঁয়াজ লাগছে না বলে কেন্দ্রীয় সরকারকে রাজ্য সরকারগুলি জানিয়ে দিয়েছে।  

জানা গিয়েছে, চলতি মাসে এখনও পর্যন্ত প্রায় ১৮ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি করেছে ভারত। তবে বিদেশি পেঁয়াজের দাম ও মান নিয়ে আপত্তি জানিয়ে একাধিক রাজ্য সেই পেঁয়াজ নিচ্ছে না। ফলে খানিকটা বিপাকে পড়ছে নয়াদিল্লি। এবার সেই অতিরিক্ত পেঁয়াজ বাংলাদেশে রপ্তানি করার কথা ভাব হচ্ছে। এদিকে, নতুন বছরেও অঙ্গলাদেশে এখনও পিঁয়াজের দাম আকাশছোঁয়া।  বৃষ্টির অজুহাত দেখিয়ে বাজারে পিঁয়াজের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে ব্যবসায়ীরা।  গত কয়েকদিনে প্রতি কেজিতে ১০০ টাকারও বেশি দর পৌঁছেছে পেঁয়াজের।  

উল্লেখ্য, ভারত থেকে আসা পেঁয়াজের অভাব পূরণ করতে আর দাম মধ‌্যবিত্তের নাগালে রাখতে মায়ানমার, ইজিপ্ট, তুরস্ক, চিনের মুখাপেক্ষী হয়েছে ঢাকা। বাংলাদেশের মতোই পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়ার মতো পেঁয়াজের প্রয়োজনে অন‌্য এশীয় দেশগুলিও ইজিপ্ট, তুরস্ক, চিনের শরণাপন্ন হয়েছে। তবে এই দেশগুলি থেকে আসা সরবরাহ, কোনও ভাবেই ভারতের অভাব পূরণ করতে পারছে না। গত অর্থবর্ষে ২২ লক্ষ টন পেঁয়াজ রপ্তানি করেছিল ভারত। কিন্তু, এবার দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম ৪৫০০ টাকা প্রতি একশো কেজি পেরোতেই রপ্তানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় ভারত।

[আরও পড়ুন: সরস্বতীর পুজোর দিন ঢাকায় পৌরনিগমের ভোট, প্রতিবাদে সরব হিন্দুরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement