২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ড্রামে লুকিয়ে গ্রামে পাড়ি শয়ে শয়ে মানুষের, নামেই লকডাউন বাংলাদেশে  

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: April 24, 2020 4:09 pm|    Updated: April 24, 2020 4:09 pm

An Images

ফাইল ফটো

সুকুমার সরকার, ঢাকা: করোনা আতঙ্কে ত্রস্ত বাংলাদেশ। সরকারের শত চেষ্টা সত্ত্বেও কিছুতেই থামছে না এই মহামারির প্রকোপ। পরিস্থিতি সামাল দিতে চলছে লকডাউন। তবে সরকারের প্রয়াসে জল ঢেলে ড্রামে লুকিয়ে শহর থেকে গ্রামের বাড়িতে ফিরে যাচ্ছে বহু মানুষ।

[আরও পড়ুন: ‘নতুন কোনও রোহিঙ্গাকে ঢুকতে দেওয়া হবে না’, স্পষ্ট জানালেন বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী]

জানা গিয়েছে, রাজধানী ঢাকা-সহ অন্য শহরগুলি থেকে প্রত্যেক দিনই মাছের ড্রামে লুকিয়ে গ্রামের বাড়িতে ফিরছে শয়ে শয়ে মানুষ। এদের বেশিরভাগই জীবিকার সন্ধানে শহরগুলিতে ঘাঁটি গেড়েছিল। লকডাউন শুরু হওয়ায় বন্ধ ব্যবসা-বাণিজ্য থেকে শুরু করে নির্মাণ কাজ ও বস্ত্র তৈরি কারখানাগুলি। ফলে জমানো পুঁজি ভেঙে কিছুদিন খাওয়ার পর অভাবের তাড়নায় গ্রামমুখী হচ্ছে এরা। করোনার বিস্তার রোধে বগুড়া জেলাকে লকডাউন বা অবরুদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পাশাপাশি বাইরের কোনও মানুষ যেন ঢুকতে না পারে সেজন্য জেলার প্রবেশমুখ শেরপুর উপজেলার সীমাবাড়ি বাজারে বসানো হয়েছে পুলিশের চেকপোস্ট। এখানে পুলিশের কড়াকড়ি আরোপের কারণে অন্য জেলার লোকজন ঢুকতে পারছে না। তবে নানা পন্থা অবলম্বন করে এবং জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ঢাকা থেকে প্রতিনিয়ত লোকজন এই জেলায় প্রবেশ করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ক্ষেত্রে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতে পিকআপ ভ্যানে মাছের ড্রামে লুকিয়ে আসছে অনেকেই। এছাড়া জরুরি সেবা, সংবাদ মাধ্যম, খাদ্যপণ্য ইত্যাদি লেখা ভুয়ো স্টিকার লাগানো যানবাহনেও চেপে চলে আসছে অনেকেই। বৃহস্পতিবার পুলিশের চেকপোস্টে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ থেকে মাছের ড্রামে লুকিয়ে যাত্রী নিয়ে আসা পিকআপ আটকের পর এমন তথ্যই উঠে আসে। আটক পিকআপের যাত্রীরা এহেন কর্মকাণ্ডের জন্য ক্ষমা চাওয়ায় তাদের নামপরিচয় লিপিবদ্ধ করে সংশ্নিষ্ট জেলা-উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।   

এদিকে, বাংলাদেশে নোভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। এপর্যন্ত মারণ রোগের কবলে পড়ে প্রাণ দিয়েছেন ১৩১ জন মানুষ। বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতির উন্নতি তো দূরের আরও অবনতির কারণে বাংলাদেশে সাধারণ ছুটির মেয়াদ আরও এক সপ্তাহ বাড়িয়ে ১ মে পর্যন্ত করার সুপারিশ করেছে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের লক্ষ্যে গঠিত জাতীয় কমিটি। মঙ্গলবার জাতীয় কমিটির সভাপতি স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সর্বসম্মতভাবে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।  

[আরও পড়ুন: ২০ লক্ষ টাকায় নিলাম শাকিবের প্রিয় ব্যাট, দুস্থদের সেবায় ব্যয় হবে অর্থ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement