BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাংলাদেশে করোনায় মৃত্যু বেড়ে ৩৪, আক্রান্ত ৬২১

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 12, 2020 9:39 pm|    Updated: April 12, 2020 9:39 pm

An Images

অঙ্কন: সুযোগ বন্দ্যোপাধ্যায়

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশে নতুন করে আরও ১৩৯ জন কোভিড-১৯ (Covid-19)-এ আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে আরও ৪ জনের। আজকের ১৩৯ জনকে ধরে আক্রান্তের সংখ্যা মোট ৬২১ জনে পৌঁছল। আর মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৩৪। রবিবার দুপুর আড়াইটের সময় ঢাকার মহাখালিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানিয়েছেন জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (IEDCR) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

এদিকে রবিবার করোনার উপসর্গ নিয়ে ফেরদৌস রহমান নামে এক ডেন্টাল সার্জন মারা গিয়েছেন। ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। ফেরদৌস গত এক সপ্তাহ ধরে জ্বরে ভুগছিলেন, পরে কাশি এবং গলাব্যথা শুরু হয়। পরে জ্বর কমে গেলেও কাশি, গলাব্যথার সঙ্গে তাঁর শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। রবিবার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তিনি বাসাতেই মারা যান। তবে যেহেতু তাঁর উপসর্গ ছিল, তাই কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

[আরও পড়ুন: বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদের দেহ কবর দেওয়ার জের, বিক্ষোভ বাংলাদেশের সোনারগাঁওয়ে ]

অন্যদিকে এক বেসরকারি টিভি চ্যানেলের একজন সাংবাদিকও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ওই সাংবাদিক দেশের বাইরে এক মাসের একটি প্রশিক্ষণ শেষে গত ২১ মার্চ ঢাকায় ফেরেন। বিমানবন্দর থেকে সরাসরি তিনি তাঁর ঢাকার বাসায় কোয়ারেন্টাইন ছিলেন। ১৫ দিন পর গত ৫ এপ্রিল স্বেচ্ছায় অফিসে যোগ দেন। কিন্তু, চারদিন অফিস করার পরই তিনি জ্বরে আক্রান্ত হন। পরে কাশি এবং গায়ে ব্যথা শুরু হলে IEDCR-এ যোগাযোগ করা হলে গত ১০ এপ্রিল তারা বাসা থেকে তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে। এরপর ১১ এপ্রিল রাতে তারা জানিয়ে দেয়, ওই সাংবাদিক করোনা পজেটিভ। যে তিনদিন অফিস করেছেন সেই সময় তিনি কাদের সঙ্গে কাজ করেছেন বা কাদের সঙ্গে মিশেছেন, তার তালিকা নেওয়া হয়। এরপর রিপোর্টিং, ক্যামেরাম্যান, প্রোডিওসার ও ডেস্ক মিলিয়ে মোট ২০ জন কর্মীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে, আরও কয়েকজন সংবাদমাধ্যমের কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে আছেন। আইইডিসিআর পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, যে চারজনের মৃত্যু হয়েছে তাঁদের দুজনের বয়স ৩০ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে। ৬০ বছর বয়সের মধ্যে একজন এবং ৭০ থেকে ৮০ বছর বয়সের মধ্যে একজন। এর মধ্যে দুজন ঢাকায় মারা গিয়েছেন। ঢাকার বাইরে মারা গেছেন দুজন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৩৪০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৩৯ জন করোনা আক্রান্তকে সনাক্ত করা হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে ৫০ শতাংশ ঢাকার। এছাড়া নতুন করে আরও চার জেলায় করোনা সংক্রমণের খবর পাওয়া গিয়েছে। আক্রান্ত জেলাগুলি হলে লক্ষীপুর, লালমনিরহাট, ঝালকাঠি ও ঠাকুরগাঁও।

[আরও পড়ুন: ফাঁসির দড়িতে ঝুলল বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদ, অপরাধীর শাস্তিতে বাংলাদেশে খুশির হাওয়া]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement