৫ মাঘ  ১৪২৬  রবিবার ১৯ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo ফিরে দেখা ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশে গণপিটুনিতে নিহত তিন ব্যক্তি। ঘটনাটি ঘটেছে যশোরের অভয়নগর উপজেলায়। নিহতরা গরুচোর বলে দাবি স্থানীয়দের। এই ঘটনায় ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, নিহতদের বয়স ৩৫ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে। আজ অর্থাৎ সোমবার ভোর চারটে নাগাদ গাইদগাছি গ্রামের খোরশেদ আলমের বাড়িতে একটি পিকআপ ভ্যানে করে কয়েকজন সন্দেহভাজন গরুচোর হানা দেয়। গোয়ালে ঢুকে তিনটি গরু চুরি করে চম্পট দেওয়ার চেষ্টা করে তারা। তবে বিধি বাম, বাড়ির মালিক টের পেয়ে চিৎকার জুড়ে দেন। চিৎকার শুনে এলাকাবাসী জড়ো হয়ে চোরদের ধাওয়া শুরু করে। পাশাপাশি এলাকার মসজিদের মাইক থেকে গরুচোরদের বিষয়ে ঘোষণা করা হয়।

জানা গিয়েছে, প্রায় দেড় কিলোমিটার ধাওয়া করে অবশেষে প্রেমবাগ গ্রামের মজুমদার পাড়ার রেলক্রসিংয়ের সামনে সন্দেহভাজন গরুচোরদের ধরে ফেলে জনতা। তারপরই শুরু হয় গণধোলাই। প্রবল মারের চোটে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় দুই সন্দেহভজন। তৃতীয় ব্যক্তিকে গুরুতর আহত অবস্থায় অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার সময় তার মৃত্যু হয়। অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক মহম্মদ তাজুল ইসলাম জানান, গরুচোর সন্দেহে গণপিটুনিতে তিনজন নিহত হয়েছেন। তিনটি গরু উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত নিহত ব্যক্তিদের নাম-পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি। তবে তদন্ত শুরু করা চলছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। 

[আরও পড়ুন: ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টায় ধৃত বৃদ্ধ, সচেতনতা প্রসারে ঢাকায় গণপদযাত্রা শিক্ষার্থী জোটের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং