৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  শুক্রবার ২৪ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ দেশের রায় LIVE রাজ্যের ফলাফল LIVE বিধানসভা নির্বাচনের রায় মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নির্বাচন ‘১৯

৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  শুক্রবার ২৪ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সুকুমার সরকার, ঢাকা: নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে সন্ত্রাসবাদী হামলায় নিহতদের মধ্যে রয়েছেন তিন বাংলাদেশি। সিলেটের বাসিন্দা হুসনে আরা পরভিন নামে বছর বিয়াল্লিশের মহিলা তাঁর অসুস্থ স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে বন্দুকবাজের গুলিতে মারা যান। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নিহত পারভিনের ভাগনে মাহফুজ চৌধুরী। তিনি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদ রয়েছে। এর একটিতে নারীরা ও অন্যটিতে পুরুষরা নমাজ পাঠ করে থাকেন। ঘটনার দিন শুক্রবার হওয়ায় জুম্মাবারের নমাজ ছিল। তাই নমাজের আধ ঘণ্টা আগে হুসনে আরা তাঁর অসুস্থ স্বামী ফরিদ উদ্দিন আহমদকে নিয়ে মসজিদে যান। ফরিদ প্যারালাইসিসের রোগী ছিলেন। তাই তাঁকে হুইল চেয়ার করে মসজিদে নিযে যাওয়া হয়েছিল। 

‘গুলি থেকে আল্লাহ আমাদের বাঁচিয়েছেন’, ক্রাইস্টচার্চ হামলার পর টুইট মুশফিকুরের

পারভিনের ভাগ্নে মাহফুজ চৌধুরী আরো বলেন, স্বামীকে ওই মসজিদে রেখে পাশের নারীদের মসজিদে চলে যান পারভিন। এর কিছুক্ষণ পরই পুরুষদের মসজিদ থেকে গুলির শব্দ শুনতে পান তিনি। দ্রুত স্বামীকে দেখতে ছুটে যান। কিন্তু সেটাই তাঁর জন্য কাল হয়ে দাঁড়ায়। কারণ, এই মসজিদ থেকে ওই মসজিদে ছুটে যাওয়ার সময়েই বন্দুকবাজের গুলি লাগে তাঁর শরীরে। ফলে ঘটনাস্থলেই মারা যান পারভিন। মাহফুজ চৌধুরী বলেন, মসজিদের বাইরে গুলির শব্দ শোনার সঙ্গে সঙ্গে কয়েকজন মুসল্লি হুইল চেয়ারে করে ফরিদ উদ্দিনকে মসজিদ থেকে বের করে নেওয়ায় তিনি বেঁচে গেছেন। কিন্তু হারিয়েছেন তাঁর স্ত্রীকে।

ফরিদউদ্দিনের বাড়ি বিশ্বনাথ উপজেলার চকগ্রামে। আর তার স্ত্রী হুসনে আরা পারভিনের বাবার বাড়ি সিলেটের গোলাপগঞ্জের জঙ্গলহাটা গ্রামে। এই দম্পতি নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ এলাকায় বসবাস করতেন। পারিবারিক সূত্র জানায়, পারভিন ও ফরিদের এক কন্যা সন্তান রয়েছে। তারা সর্বশেষ ২০০৯ সালে বাংলাদেশে গিয়েছিলেন। তারপর থেকে ক্রাইস্টচার্চেরই স্থায়ী বাসিন্দা হয়ে যান৷ 

লাইভ করতে করতেই মসজিদে ঢুকে পড়ল ক্রাইস্টচার্চের বন্দুকবাজ

এদিকে, নিউজিল্যান্ডের ভারতীয় দূতাবাস সূত্রে খবর, শুক্রবারের সন্ত্রাসবাদী হামলাযর পর অন্তত ৯ জন ভারতীয় বংশোদ্ভূত নাগরিকের খোঁজ মিলছে না৷ টুইটারে একথা জানিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের ভারতীয় রাষ্ট্রদূত সঞ্জীব কোহলি৷ ভারতীয় হাইকমিশনের পক্ষ থেকে সকলকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় সেভাবেই প্রচার চলছে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং