২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকারঢাকা: ভোটগ্রহণের পর ফেরার পথে বাংলাদেশের রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে সন্ত্রাসবাদী হামলা৷ নিহত অন্তত ৬ জন৷ রাজধানী ঢাকা থেকে  ৫০০ কিলোমিটার দূরের পাহাড়ি জেলা রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে সাজেক ইউনিয়নের নির্বাচন ছিল৷ কংলাক এলাকায় ভোটগ্রহণের পর গাড়ি করে ফিরছিলেন প্রিসাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার-সহ সংশ্লিষ্ট আধিকারিকরা। পুলিশ সূত্রে খবর, সোমবার সন্ধে সাতটা নাগাদ আচমকা অজ্ঞাত পরিচয় কয়েকজন বন্দুকবাজ বাস থামিয়ে নির্বিচারে গুলিবর্ষণ করতে থাকে৷  ঘটনাস্থলেই ৬ জন নিহত হন৷ আহত আরও ২০ জন৷

শেখ হাসিনাকে কটূক্তি, জেল হেফাজতে মহিলা ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান

একে সন্ত্রাসবাদী হামলা হিসেবেই দেখছে হাসিনা প্রশাসন৷ নিহত হয়েছেন সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার মহম্মদ আমির হোসেন, ভিডিপি সদস্য মহম্মদ আল আমিন, ভিডিপি সদস্য বিলকিস, ভিডিপি সদস্য মিহিরকান্তি দত্ত, ভিডিপি সদস্য মহম্মদ সোহেল, বাঘাইছড়ি কিশলয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও বাসের হেলপার মন্টু চাকমা। অন্যদিকে, গুরুতর আহত আরেক প্রিসাইডিং অফিসার আবদুল হান্নান-সহ ১৪ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টার যোগে চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে প্রেরণ করা হচ্ছে।  তাঁদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। স্থানীয়রা জানান,  রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার কংলাকে ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শেষে কর্মকর্তাদের বহন করা গাড়ির ওপর গুলি চালায়। এসময় গাড়িতে থাকা সকলেই আহত হন। খবর পেয়ে স্থানীয় বিজিবি, সেনাবাহিনী ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁদের উদ্ধার করে৷ বাঘাইছড়ি সদর হাসপাতালে ভরতি করানো হয়।

ক্রাইস্টচার্চে সন্ত্রাসবাদী হামলায় নিহত বাংলাদেশির সংখ্যা ৮, আশঙ্কা বিদেশমন্ত্রীর

সোমবার সন্ধের এই ঘটনায় এলাকা থমথমে, আতঙ্কিত মানুষজন৷ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জোরদার করা হয়েছে। তবে কারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত তা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কেউ জানাতে পারেনি। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে৷ প্রশাসনের একাংশের ধারণা, ওই এলাকার ভোট বানচাল করতেই এমন জঘন্য হামলা৷ এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছে হাসিনা প্রশাসন৷ ঢাকার তরফে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে৷ এমনিতেই চতুর্থবার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর সন্ত্রাস দমনে আরও কড়া ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছিলেন শেখ হাসিনা৷ তারপর নিজের দেশেই এমন একটা ঘটনার পর চিন্তার ভাঁজ বেড়েছে প্রশাসনিক কর্তাব্যক্তিদের কপালে৷  

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং