BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আগুনের বলি উঠতি ক্রিকেটার, ঢাকায় লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: March 29, 2019 1:39 pm|    Updated: August 21, 2020 3:22 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: একদিন পেরিয়েছে। তবে এখনও আগুন আতঙ্ক কাটেনি ঢাকার বাসিন্দাদের। বনানীর এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৫। তাদের মধ্যেই ছিলেন একজন উঠতি ক্রিকেটার। শোক বিহ্বল মৃতের পরিজনেরা।

[আরও পড়ুন: OMG! প্রথম সন্তান জন্মের মাত্র ২৬ দিন পর ফের প্রসব তরুণীর]

বৃহস্পতিবার, বনানীর ১৭ নম্বর রোডের একটি বহুতল ‘এফ আর টাওয়ার’ থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখা যায়। দাউ দাউ করে জ্বলে উঠে বহুতলটির ন’তলা। খবর যায় দমকলে। ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ঝলসে মৃত্যু হয় ২৫ জনের। প্রথমদিকে বেশ কয়েকজন আবাসিক বেরিয়ে আসতে সক্ষম হলেও আটকে পড়েন অনেকেই। আহত হন বেশ কয়েকজন। তাঁদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। আগুনের ভয়াবহতা এতটাই ছিল যে উদ্ধারকাজে নামানো হয়েছিল সেনা, নৌসেনা ও বায়ুসেনাকে। এছাড়াও ঘটনাস্থলে মোতায়েন করা হয় দমকলের ১৭টি ইউনিট। সময় যত এগিয়ে যায় মৃতের সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে পড়ে। এরপর শুক্রবার সকালে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এখনও পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ২৫। শুক্রবার সকাল থেকে ফের শুরু হয়েছে উদ্ধার কাজ।

জানা গিয়েছে, বনানীর বিধ্বংসী আগুনে মৃত্যু হয়েছে বাংলাদেশের উঠতি এক ক্রিকেটারের। মৃতের নাম নাহিদুল ইসলাম তুষার। বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার শাকিব আল হাসানের এলাকার বাসিন্দা ওই যুবক। বর্তমানে স্থানীয় স্তরেই খেলতেন তিনি। ঢাকায় ঘরোয়া ক্রিকেটে গতির ঝড় তোলা তুষারের স্বপ্ন ছিল জাতীয় পর্যায়ে খেলার। তবে স্বপ্নপূরণ হওয়ার আগেই না ফেরার দেশে চলে গেলেন তুষার। মর্মান্তিক এই ঘটনায় শোকস্তব্ধ সকলেই।

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশে খতম ২ মাদক কারবারী রোহিঙ্গা-সহ পাঁচ দুষ্কৃতী]

শুক্রবার সকালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা নিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন ডিএমপির গুলশানের উপ-কমিশনার (ডিসি) মোস্তাক আহমেদ। তিনি বলেন, ‘এখন পর্যন্ত যে কটি দেহ উদ্ধার করা হয়েছে, সবকটিই শনাক্ত করা হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে ২৪ জনের দেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তরও করা হয়েছে। একজনের দেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে রয়েছে। এখনও পর্যন্ত আহতের সংখ্যা ৭৩। এখনও খোঁজ মেলেনি ২০ জনের। আতঙ্ক তাড়া করছে ঢাকাবাসীদের। উল্লেখ্য, গত ফেব্রুয়ারি মাসেই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ঘটে ঢাকার চকবাজারে। ওই ঘটনায় মৃত্যু হয় ৭০ জন নিরীহ মানুষের। তারপরই তড়িঘড়ি তদন্তের নির্দেশ দেয় প্রশাসন। তার রেশ কাটার আগেই ফের বনানীর অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় প্রশ্নের মুখে নিরাপত্তা ব্যবস্থা। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement