BREAKING NEWS

২৮ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৪ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

আবরার হত্যায় কড়া পদক্ষেপ নিল বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়, আজীবন বহিষ্কৃত ২৬ পড়ুয়া

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: November 22, 2019 11:02 am|    Updated: November 22, 2019 11:02 am

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডে ২৬ জন পড়ুয়াকে আজীবন বহিষ্কার করল ‘বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি (বুয়েট)। পাশাপাশি, বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করায় ছয় জন শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দেওয়া হয়েছে৷

জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার বুয়েটের ছাত্রকল্যাণ পরিদপ্তরের পরিচালক ও বোর্ড অব রেসিডেন্স অ্যান্ড ডিসিপ্লিনের সদস্যসচিব অধ্যাপক মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়৷ যেসব শিক্ষার্থীকে বুয়েট থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন বুয়েট শাখা ছাত্রলিগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদি হাসান রাসেল, সহ-সভাপতি মুহতাসিম ফুয়াদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদি হাসান রবিন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অনিক সরকার, সাহিত্য সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন, সমাজসেবা বিষয়ক উপ-সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল, গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক ইসতিয়াক আহমেদ মুন্না। সব মিলিয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ামি লিগের ছাত্র সংগঠনটির অনেক শীর্ষই স্তরের নেতাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য, গত ৬ অক্টোবর বুয়েটে শের-ই-বাংলা হল থেকে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদের দেহ উদ্ধার করা হয়। পরে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের তদন্তে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলিগের নেতা-কর্মীরা তাঁকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। এই মামলায় অভিযুক্ত ২৫ জনের মধ্যে তিনজন এখনও পলাতক। বাকিদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশের সন্ত্রাস দমন বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার মণিরুল ইসলাম জানিয়েছেন যে এই হত্যাকাণ্ডে ১১জন সরাসরি জড়িত ছিল, বাকি পরোক্ষভাবে জড়িয়ে ছিল। এই ঘটনার দায় স্বীকার করে ৮ জন আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে। বাকি ১৩ জনের জবানবন্দি ১৬১ ধারা অনুযায়ী রেকর্ড করা হয় বলে জানান তদন্তকারীরা।

[আরও পড়ুন: হাসিনার নোবেল আটকাতেই আবরার হত্যা, আজব তত্ত্ব চট্টগ্রামের মেয়রের]

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement