৪ মাঘ  ১৪২৫  শনিবার ১৯ জানুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফিরে দেখা ২০১৮ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোটগ্রহণ শুরু হতেই আওয়ামি লিগ ও বিএনপি সমর্থকদের সংঘর্ষ, উত্তপ্ত বাংলাদেশ। রাঙামাটি এলাকায় দু’দলের সমর্থকের সংঘর্ষে নিহত যুব লিগের নেতা। আহত কমপক্ষে ১৫ জন।

রবিবার সকাল থেকে বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের ২৯৯টি আসনে ভোটগ্রহণ চলছে। নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন শাসকদল আওয়ামি লিগ ও বিএনপি নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোটের প্রার্থীরা। এবারই প্রথম স্বশাসিত নির্বাচন কমিশনের তত্ত্বাবধানে ভোট হচ্ছে বাংলাদেশে। অশান্তি এড়াতে দেশজুড়ে অভূতপূর্ব নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে প্রশাসন, নেমেছে সেনাও। হাইস্পিড ইন্টারনেট পরিষেবা, এমনকী, বাইক চলাচলেও নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কমিশন। কিন্তু, এতকিছুর পরেও অশান্তি এড়ানো গেল না! ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে শাসক-বিরোধী সংঘর্ষে প্রাণ গেল যুব লিগের স্থানীয় এক নেতার, আহত কমপক্ষে পনেরো। রবিবার সকালে বাংলাদেশের রাঙামাটি কাউখালী উপজেলার ঘাগড়া এলাকায় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন আওয়ালি লিগ ও বিএনপি সমর্থকরা। সংঘর্ষে গুরুতর জখম হন যুব লিগের সাধারণ সম্পাদক বাসেরউদ্দিন। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যান বছর ৩৭-এর ওই যুবক। ঘটনায় আহত কমপক্ষে ১৫ জন। পুলিশের তৎপরতায় দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। রাঙামাটির পুলিশ সুপার আলমগীর কবির জানিয়েছেন, এলাকায় বিশাল পুলিশবাহিনী পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে।

[বাংলাদেশে নির্বাচন ঘিরে কড়া নিরাপত্তা, বুথের বাইরে ভোটারদের লম্বা লাইন]

বাংলাদেশে এবারের নির্বাচনে কিছুটা ব্যাকফুটে বিএনপি নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট। খোদ বিরোধী নেত্রী খালেদা জিয়া এখন জেলে। বিরোধীদের ঐক্যফ্রন্টে নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিএনপি নেতা কামাল হোসেন। তিনি আবার কলকাতার সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজের প্রাক্তনী। সমস্ত নির্বাচনী সমীক্ষায়ই স্পষ্ট ইঙ্গিত, বাংলাদেশের জাতীয় সংসদে ফের সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে চলেছে শেখ হাসিনার আওয়ামি লিগই।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং