BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Coronavirus: করোনার কাঁটা, বাংলাদেশে স্থগিত ঐতিহ্যের ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা’, মনখারাপ বইপ্রেমীদের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 16, 2022 2:31 pm|    Updated: January 16, 2022 2:56 pm

Coronavirus: Famouse book fair, 'Amar Ekushe Ganthamela', in Bangladesh on postponed due to corona situation | Sangbad Pratidin

সুকুমার সরকার, ঢাকা: নতুন করে থাবা বসিয়েছেন করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) নয়া স্ট্রেন ওমিক্রন। তার ধাক্কায় ফের ব্যাহত হচ্ছে স্বাভাবিক জনজীবন। এই পরিস্থিতিতে আপাতত স্থগিত হয়ে গেল বাংলাদেশের (Bangladesh)ঐতিহ্যবাহী ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা’। রবিবার সংস্কৃতি মন্ত্রকের তরফে এই ঘোষণা করা হয়েছে। প্রতি বছর পয়লা ফেব্রুয়ারিতে শুরু হয় এই বইমেলা। এবছর তা অন্তত ২ সপ্তাহের জন্য স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে হাসিনা প্রশাসন। পরে পরিস্থিতি বুঝে তবে দিনক্ষণ স্থির করা হবে।

একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস (International Mother Language Day)উপলক্ষে গোটা মাস জুড়েই বাংলাদেশে নানা অনুষ্ঠান পালিত হয়। তার মধ্যে ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা’ খুবই বিখ্যাত এবং জনপ্রিয়। প্রতি বছর ঢাকায় (Dhaka)১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয় এই বইমেলা। এতে অংশ নিতে আসেন বিদেশি প্রকাশকরাও। ভারত (India) থেকে বহু বিশিষ্ট সাহিত্যিকও যোগ দেন। তবে এবার তা পিছিয়ে যাওয়ায় খানিকটা অনিশ্চয়তার মুখে তাঁরা সকলেই। করোনা কাঁটায় আদৌ কি হবে বইমেলা? এই প্রশ্ন উঁকি দিয়েছে সকলের মনে।

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশে ফের আক্রান্ত হিন্দু ধর্ম, দুর্গার পর এবার ৩৫টি সরস্বতী মূর্তি ভাঙল মৌলবাদীরা]

রবিবার বাংলাদেশের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য আধিকারিক ফয়সল হাসান ঘোষণা করেছেন, ১ ফেব্রুয়ারি ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা’ শুরুর প্রস্তুতি ছিল। কিন্তু করোনা সংক্রমণের কারণে তা দু’সপ্তাহের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। গত বছর নির্ধারিত সময়ে এই বইমেলা হলেও লকডাউনের কারণে ২ দিন আগেই তা শেষ করা হয়েছিল। তবে এবারের মেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

[আরও পড়ুন: বাউল সেজে গা-ঢাকা দিয়েও শেষরক্ষা হল না, বাংলাদেশে গ্রেপ্তার কুখ্যাত সিরিয়াল কিলার]

এদিকে, বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতির ক্রমশ অবনতি হচ্ছে। এখন রাজধানী ঢাকায় ঘরে ঘরে মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন জ্বরে। রয়েছে সর্দি-কাশিও। নমুনা পরীক্ষা করলেই মিলছে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট। পরিবারের একজন জ্বরে আক্রান্ত হলে পরে ওই পরিবারের অন্যরাও জ্বরের থেকে করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। এমন অবস্থায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালিক জানিয়েছিলেন, ”আমরা লকডাউন (Lockdown) দেওয়ার কথা ভাবছি।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে