৭ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ২৫ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিয়ে আলোচনা করতে বাংলাদেশে উপস্থিতি ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল কোর্টের (আইসিসি) প্রতিনিধি দল৷ মঙ্গলবার ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে, আইসিসির ডেপুটি প্রসিকিউটর জেমস কির্কপ্যাটরিক স্টিওয়ার্টের নেতৃত্বে পৌঁছায় দলটি৷

[আরও পড়ুন: আরও কাছাকাছি ভারত-বাংলাদেশ, বুধবার যাত্রা শুরু ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’-এর]

প্রশাসনিক সূত্রে খবর, মায়ানমারে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে হওয়া নির্যাতন নিয়েই বাংলাদেশের প্রতিনিধিদেরে সঙ্গে আলোচনা করবেন আইসিসির ডেপুটি প্রসিকিউটর জেমস কির্কপ্যাটরিক স্টিওয়ার্ট ও অন্যান্য প্রতিনিধিরা৷ বুধবার সকাল ৯.৩০ নাগাদ বাংলাদেশের বিদেশ সচিব শহিদুল হকের সঙ্গে বৈঠকে বসেন স্টিওয়ার্ট৷ হিংসা জর্জরিত রাখাইন প্রদেশ থেকে রোহিঙ্গাদের বিতারণ ও নির্যাতন নিয়ে আলোচনা হয় বলে খবর৷ এদিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের সঙ্গে বৈঠকের কথা রয়েছে আইসিসির ডেপুটি প্রসিকিউটরের৷ আগামীকাল পরবর্তী পন্থা নির্ধারণে নিজেদের মধ্যে আলোচনা সারবে আইসিসির প্রতিনিধি দল৷ শুক্রবার সরেজমিনে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন তাঁরা। আগেই রাখাইন প্রদেশ থেকে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়টির বিতরণের ঘটনায় পূর্ণাঙ্গ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে ‘ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল কোর্ট’৷

উল্লেখ্য, ২০১৮-এর এপ্রিলে রোহিঙ্গা বিতরণ নিয়ে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল কোর্টে আবেদন করেন ফাতোও বেনসুদা নামের এক আইনজীবী। তিনি জানতে চান, রোহিঙ্গা বিতরণের বিষয়টি আইসিসির বিচারের এক্তিয়ারে পড়ে কি না। তারপরই মায়ানমারের জবাব জানতে চায় আইসিসি। রোহিঙ্গা ইস্যুতে আন্তর্জাতিক আদালতের হস্তক্ষেপ মানতে নারাজ মায়ানমার৷ সু কি সরকার সাফ জানিয়ে দেয়, আইসিসির সদস্য নয় মায়ানমার তাই রোহিঙ্গা বিতাড়নের বিষয়টি আইসিসির বিচারের আওতায় পড়ে না। শুনানিতে নাইপিদাওয়ের এই যুক্তি খারিজ করে দেয় আদালত৷ বিচারপতি সাফ জানিয়ে দেন, ঘটনার বিস্তর প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশে৷ এবং দেশটি আইসিসির সদস্য, তাই এনিয়ে তদন্ত করার অধিকার রয়েছে আদালতের৷

[আরও পড়ুন: ব্যাংক আধিকারিককে গণধর্ষণের পর খুন, পাঁচজনের ফাঁসির সাজা বাংলাদেশে]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং