BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘গ্রেনেড হামলা চালিয়ে আমাকে খুন করতে চেয়েছিলেন খালেদা জিয়া’, বিস্ফোরক শেখ হাসিনা

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: August 21, 2020 7:54 pm|    Updated: August 21, 2020 7:57 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: খালেদা জিয়া ও তাঁর বড় ছেলে তারেক রহমান গ্রেনেড হামলা চালিয়ে তাঁকে খুন করতে চেয়েছিলেন বলে অভিযোগ করলেন শেখ হাসিনা। ২০০৪ সালে ঢাকার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামি লিগের উদ্যোগে সন্ত্রাসবাদ বিরোধী জনসভার আয়োজন করা হয়েছিল। সভা চলাকালীন সেখানে গ্রেনেড হামলা (grenade attack) চালায় দুষ্কৃতীরা। এর ফলে ২৪ জনের মৃত্যু হয়েছিল। জখম হয়েছিলেন ৫০০ জন। শুক্রবার তার ১৬তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে একটি ভারচুয়াল মিটিংয়ের আয়োজন করা হয়েছিল।

সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই হামলার পিছনে বিএনপি (BNP) প্রধান ও বাংলাদেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া এবং তাঁর বড় ছেলে তারেক রহমানের হাত ছিল বলে অভিযোগ করলেন শেখ হাসিনা। এপ্রসঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে গ্রেনেড হামলা চালিয়ে আমাকে খুন করতে চেয়েছিলেন খালেদা জিয়া ও তাঁর বড় ছেলে তারেক রহমান। সিলেটের ব্রিটিশ হাই কমিশনে হওয়া বোমা হামলা ও দেশের বিভিন্ন জায়গায় হওয়া ৫০০টি বেশি নাশকতার ঘটনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে ওখানে জনসভার আয়োজন করা হয়েছিল। সেই সুযোগে ওখানে গ্রেনেড হামলার ছক কষেন খালেদা ও তাঁর পুত্র তারেক। আমিই ওদের প্রধান লক্ষ্য ছিলাম। তাই ওই হামলা চালানোর আগে খালেদা জিয়া বলেছিলেন, আগামী ১০০ বছরেও ক্ষমতায় আসতে পারবে না আওয়ামি লিগ। ‘

[আরও পড়ুন: মুক্তমনা ব্লগার নাজিম হত্যায় চার্জশিট পেশ, আনসার নেতা মেজর জিয়া-সহ অভিযুক্ত ৯ ]

২০০৪ সালে বাংলাদেশের ক্ষমতায় থাকা বিএনপি ও জামাত জোট এই হামলার জন্য জঙ্গিদের জোগাড় করে প্রশিক্ষণ দিয়েছিল বলেও আজ অভিযোগ করেন হাসিনা। বলেন, ‘ওই গ্রেনেড হামলার পর বিএনপি ও জামাতের জোট সরকার ভেবেছিল আমি মারা গেছি। কিন্তু, পরে যখন ওরা আমার বেঁচে থাকার কথা জানতে পারে তখন জঙ্গিদের দেশ ছেড়ে পালাতে সাহায্য করে। এমনকী ওই ঘটনায় জখম মানুষদের উদ্ধার না করে পুলিশ তাঁদের উপর গুলি চালাচ্ছিল। হাসপাতালে চিকিৎস করছিল না শাসক জোটের সমর্থকরা। আসলে বিএনপি ও জামাত কোনওদিন বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনকে মানতে চায়নি। মুক্তিযুদ্ধেরও বিরোধিতা করেছিল। ওদের কাছে ক্ষমতা মানে হল দুর্নীতি করে টাকা রোজগারের একটা হাতিয়ার।’

[আরও পড়ুন: রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবর্তন চায় ভারত, বাংলাদেশ সফরে বার্তা ‘কৌশলী’ শ্রিংলার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement