২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

কেঁচো খুড়তে কেউটে! অপহরণ, খুনে বাংলাদেশে ধৃত যুবলিগ নেতার কীর্তিতে তাজ্জব গোয়েন্দারা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 27, 2020 2:57 pm|    Updated: September 27, 2020 3:01 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: এ তো কেঁচো খুঁড়তে কেউটে! কিশোরকে অপহরণ, খুনের অভিযোগে ধৃত বাংলাদেশের (Bangladesh) যুবলিগের নেতাকে জেরা করে বিস্ফোরক সব তথ্য পেলেন তদন্তকারীরা। যার জেরে এই খুনের মামলা তো বটেই, ওই নেতার বিরুদ্ধে নতুন করে অপরাধমূলক বহু কাজের মামলা দায়ের হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে। ধৃত যুবলিগ নেতার নাম আবুল হোসেন। জেরায় তদন্তকারীরা জানতে পেরেছেন, শুধু এমন অপরাধমূলক কাজই না, আবুল হোসেন রীতিমতো একটা গ্যাং চালায়, যার সব সদস্যই কিশোর। ঢাকার অপরাধ জগতে এদের সমঝে চলে সবাই।

আশুলিয়া থানা সূত্রে খবর, গত সোমবার লালমনিরহাটের কাজি কলোনি গ্রামের কিশোর সবুজ অভিমান করে বাড়ি থেকে পালিয়ে চলে গিয়েছিল বন্ধুর বাড়ি। এরপর বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে পবনারটেক এলাকায় বোনের বাড়ির দিকে রওনা দেয়। মাঝপথে এই ‘কিশোর গ্যাং’য়ের পান্ডা আবুল হোসেনের হাতে পড়ে সবুজ। তাকে অপহরণ করে মুক্তিপণ চাওয়া হয়। দাবিমতো মুক্তিপণ না পেয়ে সবুজকে আর বাঁচিয়ে রাখেনি আশুলিয়া থানা যুবলিগের (Yuba League) আহ্বায়ক কমিটির সদস্য। দিন দুই পর তাকে খুন করে ডোবার ধারে ফেলে দেওয়া হয়। সবুজের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে পুলিশ আবুল হোসেন-সহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে।

[আরও পড়ুন: হাসিনা সরকারকে হঠিয়ে ক্ষমতা দখলে পাকিস্তানের সঙ্গে ষড়যন্ত্র বিএনপি-জামাতের!]

এরপর তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ যা জানতে পারে, তাতে চোখ কপালে ওঠার জোগাড়। জানা যায়, এই আবুল হোসেন আশুলিয়া এলাকায় রীতিমত একটি ‘কিশোর গ্যাং’ চালায়। এলাকায় কোনও অশান্তি হলেই গ্যাং নিয়ে সে হাজির হয় সেখানে। হুমকি দিয়ে, ভয় দেখিয়ে এলাকা ঠান্ডা করে রাখে। তাদের এই অত্যাচার সকলে মেনে নেয় ভয়ের চোটে। কোনও প্রতিবাদ করতে পারে না। আবুলের বিরুদ্ধে এলাকায় ভুরি ভুরি অভিযোগ রয়েছে বলে তদন্তে নেমে জানতে পারেন পুলিশকর্তারা। এলাকায় বেআইনি ব্যবসার দখল অনেকাংশেই তার। এ নিয়ে ছোটখাটো অশান্তি, সংঘর্ষ লেগেই থাকে। টাকা নিয়ে জমি দখল, টাকা পাওয়ার জন্য অপহরণের মতো অপরাধের সঙ্গেও জড়িত সে।

[আরও পড়ুন: সৌদিতে থাকা ৫৪ হাজার রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশি পাসপোর্ট দিতে ‘চাপ’, সরব বিদেশমন্ত্রী]

পুলিশ আরও জানতে পেরেছে, এই সব অপরাধমূলক কাজের জন্য আবুল হোসেন সামনে রেখেছে কিশোর গ্যাংকে। তাদের দিয়েই সবরকম অপকর্ম করায় যুব লিগের এই নেতা। আবুল হোসেন এবং তার দুই সহকারীকে হেফাজতে নিয়ে এখন বিস্তারিত জানতে মরিয়া তদন্তকারীরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement