BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

প্রবাসে মৃত্যুর সংখ্যা বেশি, চিন্তায় ঘুম উড়েছে বাংলাদেশের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: April 30, 2020 11:25 am|    Updated: April 30, 2020 11:27 am

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: নোভেল করোনা ভাইরাসের হামলায় ত্রস্ত বাংলাদেশ। তবে সবচেয়ে বেশি কোপ পড়েছে প্রবাসীদের উপর। পরিসংখ্যান মতে, কোভিড-১৯ সংক্রমণে বাংলাদেশের চাইতেও আমেরিকায় মৃত্যু হয়েছে বেশি সংখ্যক বাংলাদেশির।   

[আরও পড়ুন: সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বন্ধ থাকবে বাংলাদেশের সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ইঙ্গিত শেখ হাসিনার]

এখনও পর্যন্ত বাংলাদেশে ১৬৩ জন করোনা ভাইরাসের হামলায় মারা গিয়েছেন। আক্রান্ত সাড়ে ৭ হাজার। এদিকে, আমেরিকায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১১ জন বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে সে দেশে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল ২১৭। গত এক সপ্তাহ ধরে বাংলাদেশিদের মৃত্যুর হার কম থাকলেও গত মঙ্গলবার ১১ জন বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। এর মধ্যে তিনজনই বাংলাদেশের সন্দ্বীপের। বুধবার পর্যন্ত আমেরিকায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে  ১০ লক্ষ ৬৪ হাজার ৫৭২। এদিকে নিউ ইয়র্কে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ৩ লক্ষ লোক এবং মৃত্যুবরণ করেছে ২৩ হাজার ৪৭৪ জন। নিউ ইয়র্ক সিটির গভর্নর অ্যান্ড্রেুা কুমো বলেছেন, শহরে করোনা আক্রান্ত, হাসপাতালে ভরতি এবং মৃত্যুর হার কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নিউ ইয়র্ক সিটিতে ৩৩৫ জন মারা গিয়েছেন।

এদিকে, সৌদি আরবে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৫২ জন প্রবাসী বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে এ পর্যন্ত ১৫২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। বুধবার রিয়াধে বাংলাদেশের দূতাবাস ও জেদ্দা বাংলাদেশ কনসুলেট এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। মারা যাওয়া ৫২ জন প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে ৪৬ জনের পরিচয় পাওয়া গিয়েছে। বাকি ছ’জনের পরিচয় পরবর্তী সময়ে জানিয়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ দূতাবাস। মৃতদের মধ্যে বেশিরভাগই মদিনায় ছিলেন। তা ছাড়া নিহতদের মধ্যে বেশরভাগই চট্টগ্রামের বাসিন্দা। সৌদি আরবে প্রতিদিনই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। প্রায় প্রতিদিনই নতুন করে রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্তের খবর জানাচ্ছে সৌদি আরবের স্বাস্থ্যমন্ত্রক। দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী, বুধবার সকাল পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার ৭৭ জন। আর সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ২ হাজার ৭৮৪ জন।

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশে নিকেশ রোহিঙ্গা মাদক পাচারকারী, উদ্ধার ৩০ হাজার ইয়াবা ট্যাবলেট]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement