BREAKING NEWS

২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৯ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বাংলাদেশে নিকেশ রোহিঙ্গা মাদক পাচারকারী, উদ্ধার ৩০ হাজার ইয়াবা ট্যাবলেট  

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: April 29, 2020 3:42 pm|    Updated: April 29, 2020 3:42 pm

Rohingya drug trafficker shot dead by police in Bangladesh

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশে আরও তীব্র মাদক পাচারকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান। এবার কক্সবাজারের রামু উপজেলার রাবারবাগান এলাকায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হয়েছে আবদুর রশিদ ওরফে খোরশেদ (৩০) নামের এক রোহিঙ্গা যুবক।

[আরও পড়ুন: করোনায় বিপাকে প্রবাসীরা, সৌদি আরবে মৃত ৪৫ বাংলাদেশি নাগরিক]

পুলিশ সূত্রে খবর, মঙ্গলবার রাত ১১.৩০ নাগাদ কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের রামুর জোয়ারিয়া নালার রাবার বাগান এলাকায় এই সংঘর্ষ ঘটে। নিহত খোরশেদ উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের সি-২ ব্লকের বাসিন্দা। তার বাবার নাম নজির আহমেদ। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক মানস বড়ুয়া সংবাদমাধ্যমে জানান, বন্দুকযুদ্ধের পর ঘটনাস্থল থেকে ৩০ হাজার ইয়াবা, একটি মোটরসাইকেল ও একটি বন্দুক উদ্ধার করা হয়েছে।   

গতকাল রাতে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে টহল দিচ্ছিল পুলিশের একটি বিশেষ দল। এ সময় সন্দেহভাজন এক মোটরসাইকেল আরোহীকে থামার সংকেত দিলে সে পালানোর চেষ্টা করে। পিছু ধাওয়া করলে রামুর জোয়ারিয়া নালা এলাকায় পৌঁছানোর পর একদল দৃর্বৃত্ত পুলিশকর্মীদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে ডিবি পুলিশও পালটা গুলি চালায়। সংঘর্ষ চলাকালীন বেশ কয়েকজন ইয়াবা ব্যবসায়ী পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এক ব্যক্তির মৃতদেহ, ৩০ হাজার ইয়াবা ট্যাবলেট, একটি মোটরসাইকেল ও একটি এলজি উদ্ধার করে। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

এই মুহূর্ত বাংলাদেশে রয়েছে প্রায় ১১ লক্ষ রোহিঙ্গা শরণার্থী। রাখাইন প্রদেশে বার্মিজ সেনার হামলায় বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়ছে তারা। তবে আশ্রয়প্রার্থী হয়ে এতদিন বাংলাদেশে ছিল যে রোহিঙ্গারা, আজ তারাই হয়ে উঠেছে মাথাব্যথার কারণ৷ মাদক কারবার থেকে শুরু করে খুন-ডাকাতি, বিদেশী কিশোরী-যুবতী পাচার চক্রের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছে এরা। যে কারণে আগেই রোহিঙ্গাদের মোবাইল ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে হাসিনা সরকার। পাশাপাশি বাংলাদেশের ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গাদের নাম তোলা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে বাংলাদেশ পুলিশের দুর্নীতি দমন কমিশন৷

[আরও পড়ুন: মার্কিন মুলুকে চব্বিশ ঘণ্টায় মৃত ১০ বাংলাদেশি, আতঙ্কে প্রবাসীরা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে