৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শুক্রবার ২২ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: নিজের প্রতিষ্ঠানে ইউনিয়ন তৈরি করার জন্য চাকরি থেকে বরখাস্ত মামলায় নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মহম্মদ ইউনুসকে তলব করল ঢাকার আদালত৷ তাঁর প্রতিষ্ঠান গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের সদ্য চাকরি হারা তিন কর্মীর দায়ের করা পৃথক ফৌজদারি মামলায় আগামী ৮ অক্টোবর তাঁকে ঢাকা শ্রম আদালতে হাজিরা দেওয়ার জন্য সমন পাঠানো হয়েছে৷ ইউনুস ছাড়াও একইদিনে প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং ডিরেক্টর নাজনিন সুলতানা এবং ডেপুটি খন্দকার আবু আবেদিনকেও আদালত তলব করেছে৷

[আরও পড়ুন: রোহিঙ্গা সমস্যায় মায়ানমারকে সাহায্য ভারতের, রাখাইনে ২৫০টি বাড়ি হস্তান্তর]

‘গ্রামীণ কমিউনিকেশন কর্মচারী ইউনিয়ন’৷ গত ১৬ এপ্রিল এমনই একটি প্রস্তাবিত নামের সংগঠন তৈরি করে তার রেজিস্ট্রেশনের আবেদন করেন ওই প্রতিষ্ঠানের জনাকয়েক কর্মচারী৷ ৯ জুন রেজিস্ট্রেশনের আবেদন প্রত্যাখ্যান করে আদালত৷ এনিয়ে মামলা দায়ের হয়৷ বাদী পক্ষে এমরানুল হক, শাহ আলম, আবদুস সালামদের অভিযোগ, প্রতিষ্ঠানে সংগঠন তৈরির জন্য হয়রানিমূলক বদলি, ভয় দেখানো এবং সবশেষে চাকরি থেকে বরখাস্ত করে দেওয়া হয় তাঁদের৷ ইউনিয়নের কথা জানতে পেরে সংস্থা তাঁদের সঙ্গে অত্যন্ত খারাপ আচরণ করা হয়৷ অভিযোগ, বেআইনিভাবেই তাঁদের প্রতিষ্ঠানের স্বাভাবিক কাজকর্মে বাধা দেওয়া হয়৷ কোনও কারণ ছাড়াই টার্মিনেট করেন৷ বিষয়টি লিখিতভাবে শ্রম অধিদপ্তরের ডিরেক্টরকে জানানো হয়৷ তাতেও কাজ না হওয়ায় অনুনয়-বিনয় করলেও, কাজে তাঁদের যোগ দিতে দেওয়া হয়নি৷

বাংলাদেশের নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ডক্টর মহম্মদ ইউনুসের প্রতিষ্ঠিত সার্টিফায়েড গ্রামীণ ব্যাংকের একমাত্র আইটি প্রতিষ্ঠান এই গ্রামীন কমিউনিকেশনস৷ সারা দেশে আইটি পরিষেবা দেয় গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের কর্মীরা৷ বাংলাদেশে ২৫৬টি তথ্য ব্যবস্থাপনা কেন্দ্র আইটি পরিষেবা দিয়ে থাকেন হাজার খানেক কর্মী৷ তবে ইউনিয়ন তৈরি নিয়ে খোদ প্রতিষ্ঠাতাকেই আইনি নোটিস পাঠানোয় গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের সম্মান কিছুটা ক্ষুণ্ণ হল বলে মনে করছেন অনেকেই৷

[আরও পড়ুন: নোয়াখালির গান্ধী আশ্রম বিশ্বমানের করতে সাহায্য করবে ঢাকা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং