BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

এবার পর্দায় বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক, বাংলাদেশি অভিনেতা খুঁজছেন পরিচালক

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 3, 2019 9:40 pm|    Updated: May 21, 2020 8:36 am

Shyam Benegal find actor for Bangabandhu biopic.

সুকুমার সরকার, ঢাকা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীনির্ভর চলচ্চিত্রে (বায়োপিক) অভিনয়ের জন্য বাংলাদেশের অভিনেতা খুঁজছেন পরিচালক শ্যাম বেনেগাল। বুধবার সচিবালয়ে তথ্যমন্ত্রী হাসান মেহমুদের সঙ্গে বৈঠকের সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা জানান খ্যাতিমান এই চলচ্চিত্র পরিচালক। বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ প্রযোজনায় বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক তৈরির কাজ ২০২১ সালের ২৬ মার্চ বাংলাদেশের ৫০তম স্বাধীনতাবার্ষিকীর মধ্যে শেষ হবে বলেও জানান পরিচালক।

বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে কে অভিনয় করবেন ? জানতে চাইলে শ্যাম বেনেগাল বলেন, “এই মুহূর্তে আমার কাছে এ বিষয়ে কোনও আইডিয়া নেই। কারণ এখানে আসাটাই হচ্ছে এ বিষয়ে আমার প্রথম পদক্ষেপ। মূল বিষয় হচ্ছে, আমরা বাংলাদেশের কোনও অভিনেতাকে খুঁজছি। জানার চেষ্টা করছি, বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে কে হবেন উপযুক্ত অভিনেতা। এটা সহজ কাজ নয়, খুবই কঠিন।” বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী হাসান মেহমুদ বলেন, “কারা অভিনয় করবেন তা এখনও বলার সময় আসেনি। তবে শ্যাম বেনেগাল বলেছেন, অভিনেতা বাংলাদেশ থেকে বাছাই করবেন। এই বিষয়গুলি হাইলি টেকনিক্যাল, আমরা এগুলোর জবাব দিতে পারব না। উনিই ঠিক করবেন কাকে বঙ্গবন্ধুর চরিত্রের জন্য নির্বাচন করবেন। যেহেতু উনি পরিচালক। এটা সবসময় পরিচালকের এখতিয়ার।”

[আরও পড়ুন-২৪ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর বাংলাদেশে ফের চালু জি নেটওয়ার্কের চ্যানেল]

শ্যাম বেনেগাল বলেন, “জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে সিনেমা পরিচালনার দায়িত্ব পেয়ে আমি গর্বিত। এ ধরনের চলচ্চিত্র নির্মাণের ক্ষেত্রে ইতিহাসের প্রতি সৎ থাকা বড় একটি বিষয়। আমি সেটাই করতে চাই। এটা হবে জীবনীভিত্তিক একটি চলচ্চিত্র, এর মধ্যে আরও অনেক কিছু আসবে। এটা একটি জাতির জন্মের কথা বলবে, এর একটি মহাকাব্যিক দিকও থাকবে। এতে এমন এক ব্যক্তির গল্প থাকবে, যিনি একটা দেশের বিজয় নিয়ে এসেছেন। এছাড়া গ্রিক থিয়েটারের মতো শেষের দিকে ট্র্যাজেডিও থাকবে। এটা হবে অন্যরকম একটা গল্পের চিত্রায়ন। এটা সঠিকভাবে করাটা বেশ কঠিন। কিন্তু, আমি আমার সাধ্যমতো চেষ্টা করব।” তিনি আরও বলেন, “যৌথ প্রযোজনার হলেও সিনেমার পুরো চিত্রায়ন হবে বাংলাদেশে। আমি আশা করি দুই দেশের সবাই নিষ্ঠার সঙ্গে কাজটি করবেন। তবেই এটা একটা সফল কাজ হবে।” তিনি আরও বলেন, “আমরা সবাই আশাকরি বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীর শেষে ও ২০২১ সালে স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তির মধ্যেই সিনেমাটির নির্মাণ সমাপ্ত হবে। সিনেমার মূল ভার্সনের ভাষা হবে বাংলা। অন্যান্য দেশের ক্ষেত্রে সেই দেশের ভাষার সাব টাইটেল থাকবে।”

[আরও পড়ুন-ভারতের হয়ে চরবৃত্তি, ২ বছরের কারাদণ্ড বাংলাদেশি যুবকের]

তথ্যমন্ত্রী হাসান মেহমুদ বলেন, “আগামী বছরের অর্থাৎ ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ১৭ মার্চ পর্যন্ত সময়টাকে মুজিববর্ষ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে নানা ধরনের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। সরকারের পাশাপাশি আমাদের দলের পক্ষ থেকেও নানা ধরনের কর্মসূচি নেওয়া হচ্ছে। ২০১৭ সালের ৮ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের সময় স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুসারে দুই দেশের যৌথ প্রযোজনায় বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করা হবে। দুদেশের যৌথ সিদ্ধান্তে শ্যাম বেনেগালকে এ ছবির পরিচালক মনোনীত করা হয়েছে। একই সঙ্গে তাঁকে সহায়তার জন্য ভারতের পক্ষ থেকে একটি তিন সদস্যের কমিটি করা হয়েছে। আমাদের পক্ষ থেকেও সমসংখ্যক সদস্য নিয়ে একটি কমিটি চূড়ান্ত করব। এই কমিটি বঙ্গবন্ধু ছবির পরিচালককে সহায়তা করবে। এর বাইরেও তিনি যেভাবে চাইবেন অর্থাৎ ছবি বানানোর স্বার্থে তিনি যেভাবে চাইবেন সেভাবে সহায়তা করা। আরও প্যানেল প্রয়োজন হলে তাঁকে সহায়তা করবে। মুজিববর্ষ শুরু হতে আরও প্রায় এক বছর সময় আছে। আমাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে, এ সময়ের মধ্যে ছবিটি নির্মাণ করা। এটি একটি সাড়া জাগানো ছবি হবে। আর শুধু বাংলাদেশ নয়, পুরো পৃথিবীতেই প্রদর্শিত হবে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে