Advertisement
Advertisement
Howrah

হাওড়ায় গঙ্গার ধারে উদ্ধার জোড়া দেহ, বদলা নিতেই খুন হাওড়ার দুই কিশোর?

পুলিশের দাবি, স্নান করতে নেমে তলিয়ে যায় দুই কিশোর।

2 body of teenager found in Howrah | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী।

Published by: Paramita Paul
  • Posted:March 28, 2023 12:32 pm
  • Updated:March 28, 2023 12:32 pm

অরিজিৎ গুপ্ত, হাওড়া: ফের নাবালক খুন। এবার গঙ্গার ঘাটে জোড়া দেহ উদ্ধার। সোমবার গভীর রাতে হাওড়ার নাগিরগঞ্জ ফাঁড়ির কাছ থেকে দুই নাবালকের দেহ উদ্ধার করা হয়। মৃত এক কিশোরের বাবা-মায়ের অভিযোগ, পুরনো ঘটনার বদলা নিতে তাঁদের ছেলেকে খুন করা হয়েছে। যদিও প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের দাবি, খেলাধুলো সেরে গঙ্গায় স্নান করতে নেমে ডুবে মৃত্য়ু হয়েছে দুই কিশোরের। তবে মৃত্য়ুর সমস্ত কারণ খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার গভীর রাতে হাওড়ার পাঁচপাড়া গঙ্গার ঘাটের কাছে দেহ দু’টি গঙ্গার তীরে বালির মধ্যে পড়ে থাকতে দেখা যায়। তারপর খবর পেয়ে দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। দুই নাবালকই নাজিরগঞ্জের বাদামতলা এলাকার একই পরিবারের সদস্য। দু’জনেরই বয়স ১১ থেকে ১২ বছরের মধ্যে। একজনের নাম মহম্মদ লাভিস ও অন্যজন মহম্মদ আসিফ। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের ধারণা ওই দুই নাবালক খেলাধুলোর পর গঙ্গায় স্নান করতে গিয়ে ডুবে মারা গিয়েছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: রমজান মাসে ছুটির আগেই স্কুল ‘ছুটি’, মুসলিম শিক্ষক-অশিক্ষক কর্মীদের জন্য বড় ঘোষণা]

যদিও মৃত দুই নাবালকের পরিবারের অভিযোগ, পুরনো একটা ঘটনার প্রতিশোধ নিতে দুজকে খুন করে ওই জায়গায় ফেলে আসা হয়েছে। মঙ্গলবার মৃত মহম্মদ লাভিস খানের মা রালি খাতুন বলেন, “আমি আগে যে জায়গায় ভাড়া থাকতাম সেখান এক ভাড়াটের ছেলে আমার ১৬ বছরের মেয়েকে তুলে নিয়ে বিয়ে করেছিল। প্রতিবাদে আমি পুলিশের কাছে অপহরণের মামলা করেছিলাম। সেই মামলা এখনও চলছে। এই কারণেই আমার ওপর প্রতিশোধ নিতে আমার ও বোনের ছেলেকে ওঁদের পরিবার পরিকল্পনা করে খুন করেছে। ওরা স্নান করতে গিয়ে ডুবে মারা যায়নি।” মৃত নাবালকের মা একথা বললেও পুলিশ জানিয়েছে, এ ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি। অভিযোগ করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ফের প্যান-আধার সংযুক্তিকরণের সময়সীমা বাড়ছে? নয়া সিদ্ধান্তের পথে কেন্দ্র]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ