৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

পলাশ পাত্র, তেহট্ট: দুই কিশোরীকে অপহরণের ঘটনায় উত্তেজেনা ছড়াল নদিয়ার তেহট্ট এলাকায়। ইতিমধ্যেই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে অপহৃত এক কিশোরীর মাসি-সহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে তেহট্ট থানার পুলিশ। সোমবার রাতে বিহার থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ওই দুই কিশোরীকে।

[আরও পড়ুন:ভিডিও কল করে মহিলা কর্মচারীকে অশালীন প্রস্তাব, দোকান ভাঙচুর নিগৃহীতার পরিবারের]

অপহৃত দুই কিশোরী নদিয়ার তেহট্টের বাসিন্দা। একজন অষ্টম শ্রেণির পড়ুয়া, অন্যজন নবম শ্রেণির। জানা গিয়েছে, ১৬ আগষ্ট সকালে স্কুলে যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বেরোয় ওই দুই পড়ুয়া। এরপর সন্ধে হয়ে গেলেও আর বাড়ি ফেরেনি তারা। এরপরই এলাকায় খোঁজাখুঁজি করে পরিবারের সদস্যরা। পরের দিনও তাদের হদিশ না মেলায় ১৭ আগষ্ট দুই পরিবারের তরফে তেহট্ট থানায় অপহরণের অভিযোগ করা হয়। এরপরই তদন্ত শুরু করে তেহট্ট থানার পুলিশ। অপহৃত কিশোরীদের সঙ্গে থাকা মোবাইল নম্বর ট্র্যাক করে বিহারে তারা রয়েছে বলে জানতে পারে তদন্তকারীরা। এরপর বিহার পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে তেহট্ট থানার পুলিশ।

সোমবার মোবাইলের টাওয়ার লোকেশানের ভিত্তিতে কিশোরীদের পরিবারকে সঙ্গে নিয়ে বিহারের মাঝুরিয়ায় হাজির হন পুলিশ আধিকারিকরা। সেখান থেকেই ২ নাবালিকাকে উদ্ধার করা হয়। ঘটনাস্থল থেকেই পূজা মণ্ডল নামে এক মহিলাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এরপর ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তেহট্ট থেকেই অনিমা সরকার ও রঞ্জিত মণ্ডল নামে আরও দু’জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।  ধৃত অপহৃত এক কিশোরীর মাসি। পুলিশ সূত্রে খবর, পানশালায় গান ও নাচ করিয়ে অর্থ উপার্জনের লোভেই এই কাণ্ড ঘটায় অভিযুক্তরা। এর আগে অভিযুক্তরা এহেন কোনও ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিল কি না, তা জানতে ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন:‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচির প্রচারে বিক্ষোভের মুখে গৌতম দেব, মেজাজ হারালেন মন্ত্রী]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং