BREAKING NEWS

৯ বৈশাখ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ফের ভয়াবহতার দিকে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি, মোট সংক্রমিতের সংখ্যা পেরোল ৬ লক্ষের গণ্ডি

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 7, 2021 7:41 pm|    Updated: April 7, 2021 8:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোটের মরশুমে ক্রমশ জটিল হচ্ছে রাজ্যের করোনা (Coronavirus) পরিস্থিতি। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে রাজ্যে সংক্রমিত ২৩০০-এর বেশি মানুষ। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। যা স্বাভাবিকভাবে ঘুম উড়িয়েছে রাজ্যবাসীর। 

গত বছর মার্চ মাসে করোনা থাবা বসিয়েছিল রাজ্যে। পরিস্থিতি সামাল দিতে লকডাউন জারি হয়েছিল। আড়াইমাস কার্যত স্তব্ধ ছিল জনজীবন। পরবর্তীকালে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি। ধীরে ধীরে চালু হয় গণপরিবহন। চলতি বছরের শুরুর দিকে রাজ্যের কোভিড গ্রাফ ছিল নিম্নমুখী। যা অনেকটাই স্বস্তি দিয়েছিল আমজনতাকে। কিন্তু তা দীর্ঘস্থায়ী হল না। ভোটের আবহে লাফিয়ে বাড়তে শুরু করেছে আক্রান্তের সংখ্যা। স্বাস্থ্যদপ্তর সূত্রে খবর, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২,৩৯০ জন। তাঁদের মধ্যে ৭২২ জনই কলকাতার। অর্থাৎ সংক্রমণের নিরিখে এই জেলায় প্রথমে। দ্বিতীয় স্থানে উত্তর ২৪ পরগনা। একদিনে করোনা আক্রান্ত সেখানকার ৫৪৮ জন। তৃতীয় স্থানে হাওড়া। একদিনে সংক্রমিত সেখানকার ২২৪ জন। চতুর্থ স্থানে দক্ষিণ ২৪ পরগনা। ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত সেখানকার ১২২ জন। এছাড়াও রাজ্যের সমস্ত জেলা থেকেই হদিশ মিলেছে নতুন আক্রান্তে। ফলে রাজ্যের মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬, ০০, ০২৪। 

[আরও পড়ুন: বাংলার মন পেতে ভারচুয়াল প্রচার, মমতা-অভিষেককে ব্যঙ্গ করে গান বাঁধল বিজেপি ]

পরিসংখ্যান অনুযায়ী,  একদিনে রাজ্যে করোনার বলি হয়েছেন ৮ জন। তাঁদের মধ্যে ৩ জন করে কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনার। ১ জন করে হাওড়া ও পশ্চিম বর্ধমানের বাসিন্দা। ফলে মোট করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১০, ৩৬৩। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাকে পরাস্ত করে ঘরে ফিরেছেন রাজ্যের ৮৭৬। এখনও পর্যন্ত করোনাকে জয় করে হাসিমুখে ঘরে ফিরেছেন ৫, ৭৫, ৩৭১ জন। সুস্থতার হার ৯৫. ৮৯ শতাংশ।

[আরও পড়ুন: বাংলার মন পেতে ভারচুয়াল প্রচার, মমতা-অভিষেককে ব্যঙ্গ করে গান বাঁধল বিজেপি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement