BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ছাগল চুরি করে হাতেনাতে ধরা পড়ল কুখ্যাত ‘জামতাড়া গ্যাং’য়ের ৪ মহিলা, চলল গণপিটুনি

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 10, 2020 6:30 pm|    Updated: September 10, 2020 7:17 pm

An Images

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল: সাইবার অপরাধের জন্য কুখ্যাত জামতাড়া গ্যাংয়ের (Jamtara Gang) মহিলা সদস্যরা কি না শেষমেশ ছাগল চুরি করতে এসে হাতেনাতে ধরা পড়ল! আসানসোলের (Asansol) কুলটিতে বৃহস্পতিবার চার মহিলাকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন স্থানীয় বাসিন্দারা, চলে বেধড়ক গণপিটুনি। পরিস্থিতি এতটাই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে যে পুলিশকে পর্যন্ত জনতার রোষের হাত থেকে মহিলাদের উদ্ধার করতে বেশ বেগ পেতে হয়।

Lynching

কুলটির ডেডি গ্রামের মানুষজন বেশিরভাগই পশুপালক। বহু গৃহস্থ ছাগল পালন করেন। দিন কয়েক ধরেই সেই ছাগলগুলি চড়তে গিয়ে ফিরে আসছিল না। প্রায়ই কারও না কারও ছাগল উধাও হয়ে যাচ্ছিল। বৃহস্পতিবার স্থানীরা দেখেন, চিত্তরঞ্জন রোডে একটি অটো এসে দাঁড়ায় ফাঁকা রাস্তার উপর। চারজন মহিলা অটো থেকে নেমে চড়তে থাকা ছোট ছোট ছাগলগুলিকে কোলে তুলে ওড়না ঢাকা দিয়ে অটোর দিকে দ্রুত পালিয়ে যাচ্ছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা দ্রুত অটো-সহ ওই মহিলাদের ধরে ফেলে। চুরি যাওয়া ছাগলগুলিও উদ্ধার হয়।

[আরও পড়ুন: দেড়দিন পরও খোঁজ নেই হুগলির NEET পরীক্ষার্থীর, রহস্য বাড়াচ্ছে মুছে ফেলা হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ]

এই ঘটনা জানজানি হতেই গ্রামের মহিলারা ধৃতদের গণপ্রহার দিতে শুরু করে। চুলির মুঠি ধরে জুতো পেটা করা হয় তাদের। খবর পৌঁছয় নিয়ামতপুর ফাঁড়িতে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই মহিলাদের উদ্ধার করতে গেলে বেশ বেগ পেতে হয়। কার্যত উত্তেজিত জনতার সঙ্গে ধস্তাধস্তি বাধে পুলিশের। গণপ্রহারের শিকার থেকে মহিলাদের উদ্ধার করে কোনওক্রমে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। জানা গিয়েছে, ধৃতরা প্রত্যেকেই জামতাড়ার বাসিন্দা। সাইবার অপরাধে জামতাড়া গ্যাং এর নাম শোনা গেলও এই প্রথম মহিলাদের গ্যাং এর খোঁজ মিলল কুলটিতে।

[আরও পড়ুন: মেলেনি আমফানের ক্ষতিপূরণ, অভিযোগে তির-ধনুক নিয়ে বিক্ষোভ,অবরোধ সুন্দরবনের আদিবাসীদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement