০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ঠাকুর দেখে ফেরার পথে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা, মৃত পাঁচ বছরের শিশু

Published by: Tanujit Das |    Posted: October 3, 2019 5:40 pm|    Updated: October 3, 2019 5:40 pm

5 years old baby died in Murshidabad, on the day of Chathurthi

ছবি: প্রতীকী।

চন্দ্রজিৎ মজুমদার, কান্দি: মহাচতুর্থীর রাতে ঠাকুর দেখে ফিরছিল সে৷ পুজোর আনন্দে ফুটছিল পাঁচ বছরের শৈশব৷ মনে ছিল পঞ্চমীর দিন আরও আনন্দের পরিকল্পনা৷ কিন্তু নিয়ত তাকে সেই সুযোগ দিল না৷ ঠাকুর দেখে বাড়ি ফেরার পথে একটি বাড়ির চাল ভেঙে পরে মৃত্যু হল এক পাঁচ বছরের এক শিশু। আহত আরও তিন শিশু৷ মৃতার নাম মিমি বাগদি৷ বুধবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদ জেলার কান্দি থানার অন্তর্গত গোকর্ণ দক্ষিণপাড়া এলাকায়।

[ আরও পড়ুন: জেএনইউ জয়ের পর ঘরে ফিরল দুর্গাপুরের ঐশী, পুজো কাটবে বামপন্থী বইয়ের স্টলে ]

জানা গিয়েছে, আহত তিন শিশুর নাম আশা বাগদি, শুভশ্রী বাগদি ও রাধা বাগদি। এদের সবারই বয়স চার থেকে আট বছরের মধ্যে। ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে গোকর্ণ গ্রামীণ হাসপাতালে ভরতি নিয়ে যাওয়া হয় চারজনকে৷ সেখানেই মিমিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা শুরু হয় গোকর্ণ গ্রামীণ হাসপাতালে। এরপর আশা ও শুভশ্রীকে সংকটজনক অবস্থায় মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

[ আরও পড়ুন: ডুয়ার্সে ফের বন্ধ চা বাগান, পুজোর মুখে কর্মহীন বহু শ্রমিক ]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ভেঙে পড়া বাড়ির বাইরে বেশ কয়েকজন শিশু দাঁড়িয়ে ছিল। তাদের মাথার উপর হঠাৎ করে টিনের চালটি ভেঙে পড়ে৷ গুরুতর আহত হয় তারা। টিনে চালে মৃত শিশুটির গলার একাংশ কেটে যায়৷ বাকিরা গুরুতর আহত হন৷ দ্রুত তাদের হাসপাতালে নিয়ে গেলে, চিকিৎসকরা মিমিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন৷ এবং বাকিদের চিকিৎসা শুরু করেন৷ ইতিমধ্যে ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ৷ কীভাবে এই ধরণের মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটল, তা খতিয়ে দেখছে কান্দি থানার পুলিশ। বৃহস্পতিবার ময়না তদন্তের পর মৃত শিশুটির দেহ তার বাড়ির লোকেদের হাতে তুলে দেয় কান্দি থানার পুলিশ৷ ঘটনায় উৎসবের মেজাজে এই মর্মান্তিক ঘটনায় স্বভাবতই শোকের ছায়া নেমে এসেছে মিমির পরিবার ও এলাকায়বাসীর মধ্যে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে