BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শুক্রবার ২ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

গাছের সঙ্গে ফাঁস লাগিয়ে শিশুকে খুনের অভিযোগ, চাঞ্চল্য কর্ণজোড়ায়

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: August 18, 2018 2:15 pm|    Updated: August 18, 2018 2:15 pm

7-year-old found hanging from tree in Raigunj

ছবি: প্রতীকী

শঙ্করকুমার রায়, রায়গঞ্জ: সাত বছরের এক শিশুকে শ্বাসরোধ করে খুনের পর দেহ গাছে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল একদল দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে৷ নৃশংস এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জের কর্ণজোড়া পুলিশ ফাঁড়ির পশ্চিম বোগ্রাম গ্রামে৷ পুলিশ জানিয়েছে, মৃত শিশুর নাম দেবু রায় (৭)৷ ঘটনাস্থলে কর্ণজোড়া ফাঁড়ির পুলিশ পৌঁছে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়৷ শুক্রবার সাতসকালে শিশু দেহ উদ্ধারের ঘটনায় প্রতিবাদে গর্জে উঠেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা৷ ঘটনাস্থল থেকে একটি দশ টাকার নোট ও একটি আধখাওয়া আপেল উদ্ধার করেছে পুলিশ৷ কোনও অপরাধমূলক কাজ দেখে ফালায় বছর সাতেকের দেবু রায়কে খুন করা হয়ে থাকতে পারে অনুমান স্থানীয়দের৷ এছাড়াও, খুনের পিছনে তন্ত্রসাধনার যোগ থাকার আশঙ্কা এখনই উড়িয়ে দিতে পারছে না পুলিশ৷ খুনের কারণ জানতে ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷

[বারুইপুরে বধূর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, খুনের অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে]

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রায়গঞ্জের পশ্চিম বোগ্রামের বাসিন্দা, দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র দেবু শুক্রবার স্থানীয় একটি মন্দিরে মনসা পুজো দেখতে যায়৷ কিন্তু, রাত আটটা বাজে গেলেও দেবু বাড়িতে ফিরে না আসায় তাকে খুঁজাখুঁজি শুরু করেন বাবা বাদল রায়-সহ পরিবারের অন্যান্য লোকেরা৷ অনেক খোঁজাখুঁজি করেও দেবুকে পাওয়া না গেলে স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়িতে নিখোঁজের ডায়েরি করেন শিশুর পরিবারের সদস্যরা৷ আজ সকালে বাড়ি থেকে দেড় কিলোমিটার দূরে একটি জঙ্গলে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় নগ্ন দেহ একটি গাছের সঙ্গে ঝুলতে দেখেন স্থানীয় মহিলারা৷ শিশুর ঝুলন্ত দেহ দেখে সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েন স্থানীয় এক মহিলা। পরে স্থানীয় বাসিন্দা পৌঁছে ওই মহিলাকে উদ্ধার করেন৷ পাশাপাশি শিশুকে শনাক্ত করেন তাঁরা৷ পরে দেহ উদ্ধারের খবর পুলিশকে জানানো হয়৷ সাতসকালে এলাকায় শিশুর দেহ উদ্ধারের ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে৷ মৃতদেহের পাশে একটি আধ খাওয়া আপেল ও একটি দশ টাকার নোট দেখতে পান এলাকার বাসিন্দারা। স্থানীয় বাসিন্দাদের অনুমান, গতকাল মনসা পুজো ছিল৷ কোনও তন্ত্রসাধনা করতেই ওই শিশুকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে৷ অথবা, কোনও অপরাধমূলক কাজের সাক্ষী থাকায় ওই শিশুকে খুন করা হয়ে থাকতে থাকতে পারে বলে অনুমান স্থানীয়দের৷

[বারাসতে যান্ত্রিক গোলযোগের জের, বনগাঁ শাখায় দেড় ঘণ্টা বন্ধ রেল পরিষেবা]

শনিবার সকালের এই ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন স্থানীয় বাসিন্দারা৷ দুষ্কৃতীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে চরম শাস্তির দাবি তুলেছেন পশ্চিম বোগ্রামের বাসিন্দারা৷ তবে, পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, শিশুটিকে টাকা ও আপেলের লোভ দেখিয়ে জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে খুন করা হয়ে থাকতে পারে৷ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে