BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

চাকরির নামে আটকে রেখে লাগাতার ধর্ষণ, পুলিশের জালে অভিযুক্ত

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: May 31, 2019 9:06 pm|    Updated: May 31, 2019 9:06 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  বাগদার বাসিন্দা এক যুবতীকে চাকরি দেওয়ার নামে নেপালে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১ যুবক। ধৃতের নাম সঞ্জীব বিশ্বাস ওরফে অপূর্ব। ঘটনার সঙ্গে জড়িত অন্যান্যদের খোঁজে তদন্ত শুরু করেছে বাগদা থানার পুলিশ। 

[আরও পড়ুন:বায়োমেট্রিক হাজিরায় আপত্তি শ্রমিকদের, বিক্ষোভ দুর্গাপুরের ইস্পাত কারখানায়]

সূত্রের খবর, উত্তর ২৪ পরগনার বাগদার বাসিন্দা নির্যাতিতা তরুণী। ছোট থেকেই অভাব নিত্যসঙ্গী। সেই সুযোগকেই কাজে লাগায় এলাকার এক যুবক। জানা গিয়েছে, স্থানীয় এক যুবকের মাধ্যমেই সঞ্জীবের সঙ্গে পরিচয় হয় বাগদার মশামপুর এলাকার বাসিন্দা ওই যুবতীর। সূত্রের খবর, তরুণীর কাছে নিজেকে চিকিৎসক হিসেবে পরিচয় দেন অপূর্ব। এবং তাঁর চেম্বারে তরুণীকে কাজ করার প্রস্তাব দেন তিনি। পরিবারের আর্থিক অবস্থার কথা চিন্তা করে অনিচ্ছা সত্বেও সঞ্জীবের সঙ্গে নেপাল সীমান্ত-সংলগ্ন আলিগড়বা গ্রামে পাড়ি দেন ওই তরুণী।

সেখানে যেতেই ভুল ভাঙে তরুণীর। তিনি জানতে পারেন, আদতে সঞ্জীব চিকিৎসক নন। তার কোনও চেম্বারও নেই। জানা গিয়েছে, আলিগড়বা পৌঁছানোর পরই ওই তরুণীর উপর অত্যাচার শুরু করে সঞ্জীব। অভিযোগ, একটি ঘরে আটকে রেখে লাগাতার ওই তাঁকে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত। প্রতিবাদ করলে মারধরও করা হত নির্যাতিতাকে।

[আরও পড়ুনমাদারিহাটে বৃদ্ধাকে পিষে মারল দাঁতাল, ক্ষতিপূরণের আশ্বাস প্রশাসনের]

সেখানে কিছুদিন থাকার পর, নির্যাতিতা তরুণীকে নিয়ে নেপালের হাড়িয়া এলাকায় চলে যায় অভিযুক্ত। অভিযোগ, সেখানে সঞ্জীব ও তাঁর কয়েকজন বন্ধু লাগাতার ধর্ষণ করে ওই নির্যাতিতাকে। গোটা ঘটনাটির ভিডিও করে রাখে অভিযুক্তরা। এভাবেই চলে বেশ কয়েকদিন। এরই মাঝে ১৯ মার্চ কোনও ক্রমে সঞ্জীবের ডেরা থেকে পালায় নির্যাতিতা। এরপর থেকেই ফোনে ক্রমাগত যুবতীকে খুনের হুমকি দিতে শুরু করে অভিযুক্তরা। এরই মধ্যে গোপনে বনগাঁর এসডিপিও-এর আছে গোটা বিষয়টি জানায় তরুণী। তাঁর করা অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার সিদ্রানী এলাকা থেকে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের আশ্বাস দিয়েছে তদন্তকারীরা।  

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement