BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

একশো দিনের কাজের ৯ লক্ষ টাকা তছরূপের অভিযোগ, কাঠগড়ায় বিজেপির পঞ্চায়েত প্রধান

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: September 30, 2020 5:43 pm|    Updated: September 30, 2020 5:57 pm

An Images

জ্যোতি চক্রবর্তী, বনগাঁ: এবার ১০০ দিনের প্রকল্পের টাকা তছরূপের অভিযোগ উঠল গোপালনগর (Gopalnagar) থানার চৌবেড়িয়া ২ পঞ্চায়েতের বিজেপির প্রধানের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় নাম জড়িয়েছে উপ-প্রধান ও সুপারভাইজারেরও। অভিযোগ, কাজ না হওয়া সত্ত্বেও ৯ লক্ষ টাকা তুলে নিয়েছেন অভিযুক্তরা। যদিও নিজেদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ মানতে নারাজ অভিযুক্তরা।

স্থানীয়দের কথায়, ওই মামুদপুর কলোনি এলাকার পার্বতী খালের প্রায় ২০০মিটার এলাকায় কাজের নাম করে ৯ লক্ষ টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু বাস্তবে কোনও কাজই হয়নি। দিন দুয়েক আগে এবিষয়ে মহকুমাশাসক ও ব্লক আধিকারিকের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন এলাকার একজন। তদন্তের দাবি জানান। এরপর বুধবার মামুদপুরের বাসিন্দারা অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে পোস্টার হাতে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। তাঁরা বলেন, তাঁদের কাছে খবর রয়েছে যে কাজ হয়েছে দেখিয়ে একশো দিনের কাজের টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু আদতে কিছু হয়নি। স্থানীয় শুভাশি হালদারের কথায়, “আমরা প্রধান নমিতাদেবীকে বারবার বলেছি। কিন্তু উনি আমাদের কথায় কোনও গুরুত্ব দেননি। এরপরই মহকুমা শাসক ও ব্লক আধিকারিকের কাছে লিখিতভাবে অভিযোগ জানিয়েছি।”

BJP

[আরও পড়ুন: বিহার থেকে কলকাতায় পাচারের ছক, প্রায় সাড়ে সাতশো টিয়াপাখি-সহ ধৃত বর্ধমানের ২ যুবক]

এ বিষয়ে প্রধান নমিতা রায়কে প্রশ্ন করা হলে সাংবাদিকদের সঙ্গে দূরব্যাবহার করেন তিনি। মন্তব্য করতে প্রথমে অস্বীকার করেন। কাজের অজুহাত দিয়ে ঘটনাস্থল ছাড়েন। পরবর্তীতে তিনি বলেন, বনগাঁর একমাত্র বিরোধী পঞ্চায়েত চৌরেড়িয়া। সেই কারণেই শাসকলদের তরফে তাঁকে কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

[আরও পড়ুন: ‘যারা আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তোলে তারা সবচেয়ে বড় গুন্ডা’, পরোক্ষে বিজেপিকে খোঁচা মমতার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement